ডিগ্রী ৩য় বর্ষ ২০২২ ইংরেজি রকেট স্পেশাল সাজেশন ফাইনাল সাজেশন প্রস্তুত রয়েছে মূল্য মাত্র ২৫০টাকা সাজেশন পেতে দ্রুত যোগাযোগ ০১৯৭৯৭৮৬০৭৯
ডিগ্রী তৃতীয় বর্ষ এবং অনার্স প্রথম বর্ষ এর রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে যোগাযোগ করুন সাজেশন মূল্য প্রতি বিষয় ২৫০টাকা। Whatsapp +8801979786079
Earn bitcoinGet 100$ bitcoin

প্রশ্নঃ বাংলাদেশে সঞ্চয় বৃদ্ধির উপায়সমূহ আলোচনা কর ।

[ad_1]

প্রশ্নঃ বাংলাদেশে সঞ্চয় বৃদ্ধির উপায়সমূহ আলোচনা কর ।

উত্তরা ভূমিকা : সঞ্চয় বা সঞ্চয়প্রবণতা সাধারণত আয়ের উপর নির্ভর করে । তবে আয় ছাড়াও ব্যক্তিগত , পারিবারিক , সামাজিক ও মনস্তাত্ত্বিক অনেক উপাদান সঞ্চয় বৃদ্ধিতে সহায়তা করে ।

বাংলাদেশে সঞ্চয় বৃদ্ধির উপায় : নিম্নে বাংলাদেশে সঞ্চয় বৃদ্ধির উপায়গুলো আলোচনা করা হলো :

১. আয় বৃদ্ধি : আয় থেকে ভোগ ব্যয় বাদ দিলে সঞ্চয় পাওয়া যায় । কাজেই আয় বৃদ্ধি সঞ্চয় বৃদ্ধিকে ব্যাপকভাবে প্রভাবিত করে । আয় বেশি হলে সঞ্চয় বৃদ্ধি পাবে বৃদ্ধি হ্রাস পাবে । সুতরাং বাংলাদেশের জনগণের আয় বাড়লে সঞ্চয় , বাড়বে ।

২. সঞ্চয়প্রবণতা বা সঞ্চয়ের ইচ্ছা বৃদ্ধি : মানুষের সঞ্চয়প্রবণতা তথা সঞ্চয়ের ইচ্ছা বৃদ্ধি পেলে সঞ্চয় বৃদ্ধি পায় । সঞ্চয়ের ইচ্ছা কম হলে আয় বেশি হলেও সঞ্চয় বৃদ্ধি পায় না । আবার সঞ্চয়ের ইচ্ছা প্রবল হলে আয় কম হলেও সঞ্চয় বৃদ্ধি পায় । Target saver এর বেলায় সঞ্চয় বৃদ্ধি পায় এবং Residue saver এর বেলায় সঞ্চয় বৃদ্ধি কম হয় ।

৩. দাম স্তর হ্রাস : দাম স্তর হ্রাস সঞ্চয়কে প্রভাবিত করে । দাম স্তর বেশি হলে আয়ের সিংহভাগ দৈনন্দিন ব্যয় মিটাতে ব্যয় হয় । এ অবস্থায় সঞ্চয় বৃদ্ধি হ্রাস পায় । পক্ষান্তরে , দাম স্তর হ্রাস পেলে জীবনধারণের ব্যয় কমে এবং সঞ্চয় বৃদ্ধি পায় । বাংলাদেশে দ্রব্যের দামের ঊর্ধ্বগতি সঞ্চয়কে প্রভাবিত করে । সুতরাং দাম স্তরকে স্থিতিশীল বা সহনীয় পর্যায়ে রাখলে সঞ্চয় বাড়বে ।

৪. সুদের হার বৃদ্ধি : সুদের হার প্রত্যক্ষভাবে সঞ্চয়কে প্রভাবিত করে । সুদের হার বেশি হলে / বাড়লে অধিক আয়ের আশায় মানুষ বেশি সঞ্চয় করে । আবার সুদের হার হ্রাস পেলে / কমলে মানুষ সঞ্চয়ের পরিমাণ কমিয়ে দেয় ।

৫. প্রত্যাশা হ্রাস : ভবিষ্যতে আয় বাড়তে পারে এমন প্রত্যাশা থাকলে বর্তমানে সঞ্চয় কম হয় । আবার , ভবিষ্যতে আয় প্রাপ্তি কমে যেতে পারে এমন প্রত্যাশা থাকলে বর্তমানে সঞ্চয় বাড়ে । কাজেই প্রত্যাশা মানুষের সঞ্চয়কে প্রভাবিত করে ।

৬. অভ্যাস ও রুচির পরিবর্তন : উন্নত ভোগ , অভ্যাস ও রুচিবোধ মানুষের সঞ্চয়কে প্রভাবিত করে । কারণ উন্নত ভোগ , অভ্যাস ও রুচি থাকলে ভোগ ব্যয় বেশি হয় এবং সঞ্চয় কম হয় । পক্ষান্তরে , অনুন্নত রুচিবোধ থাকলে কিংবা উন্নত ভোগের সাথে মানুষের পরিচয় না থাকলে ভোগ কম হয় এবং সঞ্চয় বেশি হয় ।

৭. ব্যাংক ব্যবস্থা উন্নীতকরণ : আধুনিক কালে মানুষ সঞ্চয় করে মূলত নগদ অর্থে । নগদ অর্থ নিজের কাজে রাখা খুবই ঝুঁকিপূর্ণ । তাই সঞ্চিত অর্থ ব্যাংকে রাখা নিরাপদ । ব্যাংক ব্যবস্থা উন্নত হলে মানুষের সঞ্চয়ের পরিমাণ বাড়ে । তাছাড়া ব্যাংকে টাকা জমা রাখা এবং উত্তোলন সংক্রান্ত নিয়মাবলি যত সহজ সরল হবে সঞ্চয়ের পরিমাণ ততই বৃদ্ধি পাবে ।

৮. অনুন্নত সামাজিক নিরাপত্তা : সরকার কর্তৃক প্রদত্ত শিক্ষাভাতা , বেকারভাতা ও বয়স্কভাতা ইত্যাদি সামাজিক নিরাপত্তা না থাকলে মানুষের সঞ্চয়প্রবণতা বেশি হয় ।

উপসংহার : উপর্যুক্ত পন্থা অবলম্বন করে আমরা সঞ্চয় বৃদ্ধি করতে পারি ।

[ad_2]

পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন:01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!