ডিগ্রী ৩য় বর্ষ ২০২২ সকল বিষয়ের রকেট স্পেশাল সাজেশন ফাইনাল সাজেশন প্রস্তুত রয়েছে মূল্য মাত্র ২৫০টাকা প্রতি বিষয় এবং ৭ বিষয়ের নিলে ১৫০০টাকা। সাজেশন পেতে দ্রুত যোগাযোগ ০১৯৭৯৭৮৬০৭৯
ডিগ্রী তৃতীয় বর্ষ এবং অনার্স প্রথম বর্ষ এর রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে যোগাযোগ করুন সাজেশন মূল্য প্রতি বিষয় ২৫০টাকা। Whatsapp +8801979786079

প্রশ্নঃ জনশক্তি রপ্তানি বৃদ্ধির উপায়সমূহ আলোচনা কর ।

[ad_1]

প্রশ্নঃ জনশক্তি রপ্তানি বৃদ্ধির উপায়সমূহ আলোচনা কর ।

উত্তর : বাংলাদেশ একটি জনবহুল দেশ । জনসংখ্যা সমস্যা এদেশের অন্যতম প্রধান সমস্যা । স্বাধীনতার এত বছর পরেও এদেশের কাঙ্ক্ষিত অর্থনৈতিক উন্নয়ন সাধিত হয় নি । বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশি জনশক্তির ব্যাপক চাহিদা রয়েছে । তাই আমাদের জনশক্তি রপ্তানি বৃদ্ধির জন্য বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা দরকার ।

জনশক্তি রপ্তানি বৃদ্ধির উপায় : নিম্নে জনশক্তি রপ্তানি বৃদ্ধির উপায়সমূহ আলোচনা করা হলো :

১. কর্মমুখী শিক্ষার প্রচলন : সাধারণ শিক্ষার পাশাপাশি বৃত্তিমূলক শিক্ষা দিয়ে জনশক্তিকে বিদেশে কাজ করার যোগ্যতা অর্জন করাতে হবে । বিভিন্ন শহরগুলো কর্মমুখী শিক্ষা কেন্দ্র চালু করতে হবে ।

২. প্রশিক্ষণ : আমাদের দেশে যেসব জনশক্তি রয়েছে তাদের অধিকাংশ অদক্ষ । বিশ্বের বাজারে অদক্ষ শ্রমিকের কোন কদর নেই । বিভিন্ন মেয়াদি প্রশিক্ষণ কার্যক্রম হাতে নিয়ে জনগণকে দক্ষ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে ।

৩. ভাষা শিক্ষা : বিদেশে কাজ পেতে হলে সংশ্লিষ্ট দেশের ভাষা শিখে নেয়াটা অত্যন্ত জরুরি । বিভিন্ন দেশের ভাষা শিক্ষার ব্যবস্থা করে বিশেষ করে ইংরেজি ভাষা শিক্ষা প্রসারের মাধ্যমে জনশক্তি রপ্তানির পরিমাণ বাড়ানো সম্ভব ।

৪. চাকরির বাজার সন্ধান : বিদেশে চাকরির বাজার অনুসন্ধানকল্পে সম্ভাবনাময় বিভিন্ন দেশে সরকারি বেসরকারি প্রতিনিধিদল প্রেরণ করে পারস্পরিক আলোচনার মাধ্যমে জনশক্তি রপ্তানি বাড়ানো যেতে পারে ।

৫. রূতাবাসের কার্যক্রম বৃদ্ধি : জনশক্তি রপ্তানি বাড়ানোর ক্ষেত্রে দূতাবাসগুলো সহযোগিতা , সক্রিয়তা এবং কার্যকর উদ্যোগ সহায়ক ভূমিকা পালন করতে পারে । চাকরি খোঁজা , মজুরি ও সুযোগ সুবিধা নিয়ে দরকষাকষি ইত্যাদি দায়িত্ব পালনে দূতাবাসগুলোকে আরো সচেষ্ট হতে হবে ।

৬. দালাল চক্র নিয়ন্ত্রণ : জনশক্তি রপ্তানির সাথে অনেক দালাল চক্র জড়িত । দালালদের খপ্পরে পড়ে অনেকে সর্বস্বান্ত হয়ে বিদেশ গমনে অনিহা প্রকাশ করে । তাই দালাল চক্র নিয়ন্ত্রণ করতে পারলে বিদেশে প্রচুর জনশক্তি রপ্তানি করা সম্ভব হবে ।

৭. ঋণ সহায়তা : অর্থের অভাবে অনেক দক্ষ কর্মী বিদেশে গমন করতে পারে না । তাই বিদেশে গমনেচ্ছু কর্মীকে সহজ শর্তে ঋণের ব্যবস্থা করলে ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধা বর্ধিত করলে জনশক্তি রপ্তানি বহুগুণে বেড়ে যাবে ।

৮. আইনগত জটিলতা সহজীকরণ : বিদেশে গমনের ক্ষেত্রে নানারকম আইনগত জটিলতা রয়েছে । আইনগত জটিলতার কারণে অনেকে বিদেশে গমনের আগ্রহ হারিয়ে ফেলে । তাই আইনগত জটিলতা সহজ বা দূরীকরণ করতে পারলে জনশক্তি রপ্তানি বেড়ে যাবে ।

৯. বিনিয়োগ সুবিধা : প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্স দেশে লাভজনক ক্ষেত্রে বিনিয়োগের সুযোগ সুবিধা প্রদান করতে হবে । তাহলে অনেকে বিদেশে গমনে আগ্রহী হবে এবং জনশক্তি রপ্তানি বৃদ্ধি পাবে ।

১০. আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বৃদ্ধি : বিভিন্ন দেশের সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক বাড়ানোর মাধ্যমে জনশক্তি রপ্তানি বাড়ানো যেতে পারে । আবার যেসব দেশের সাথে সম্পর্ক খারাপ অথবা আদৌও সম্পর্ক নেই সেসব দেশে বিভিন্ন প্রতিনিধি দল প্রেরণ করে সম্পর্ক বৃদ্ধির চেষ্টা করতে হবে ।

১১. সরকারি নিয়ন্ত্রণ বৃদ্ধি : জনশক্তি রপ্তানির ক্ষেত্রে বিভিন্ন ব্যক্তি বা গোষ্ঠী জড়িত থাকে । সরকার বিভিন্ন আইনকানুন প্রয়োগ করে নিয়ন্ত্রণ বৃদ্ধি করতে পারে । ফলে বিভিন্ন প্রতারক চক্রের কার্যক্রমহ্রাস পাবে এবং জনশক্তি রপ্তানি বৃদ্ধি পাবে ।

উপসংহার : জনশক্তি রপ্তানির ক্ষেত্রে উপযুক্ত কার্যক্রম গ্রহণ করলে এবং ক্ষতিকর দিকগুলো পরিহার করলে জনশক্তি রপ্তানি দিন দিন আরো বৃদ্ধি পাবে এবং দেশের অর্থনীতির চাকা সচল হবে । তাই আমাদের জনশক্তি রপ্তানি বৃদ্ধির জন্য উপযুক্ত কার্যক্রম ছাড়াও গবেষণার মাধ্যমে নতুন নতুন উপায় উদ্ভাবন করতে হবে ।

[ad_2]



পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!