ডিগ্রী ৩য় বর্ষ ২০২২ সকল বিষয়ের রকেট স্পেশাল সাজেশন ফাইনাল সাজেশন প্রস্তুত রয়েছে মূল্য মাত্র ২৫০টাকা প্রতি বিষয় এবং ৭ বিষয়ের নিলে ১৫০০টাকা। সাজেশন পেতে দ্রুত যোগাযোগ ০১৯৭৯৭৮৬০৭৯
ডিগ্রী তৃতীয় বর্ষ এবং অনার্স প্রথম বর্ষ এর রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে যোগাযোগ করুন সাজেশন মূল্য প্রতি বিষয় ২৫০টাকা। Whatsapp +8801979786079

প্রশ্নঃ জনশক্তি রপ্তানির সামাজিক প্রভাবসমূহ আলোচনা কর ।

[ad_1]

প্রশ্নঃ জনশক্তি রপ্তানির সামাজিক প্রভাবসমূহ আলোচনা কর ।

উত্তর- ভূমিকা : জনশক্তি রপ্তানির সামাজিক প্রভাব খুবই গুরুত্বপূর্ণ । আমাদের সমাজটা অনেকক্ষেত্রে কলুষমুক্ত ও সন্ত্রাসমুক্ত হবে জনশক্তি রপ্তানির দ্বারা ।

জনশক্তি রপ্তানির সামাজিক প্রভাব : বাংলাদেশ থেকে জনশক্তি রপ্তানির সামাজিক প্রভাবও কম গুরুত্বপূর্ণ নয় । নিম্নে জনশক্তি রপ্তানির সামাজিক প্রভাবসমূহ আলোচনা করা হলো :

১. সামাজিক বৈষম্য : বর্তমান সময়ে দেখা যায় সমাজে যার অর্থ বেশি তার প্রভাব বেশি । যেসব পরিবারের লোকজন বিদেশে কর্মরত তারা আর্থিকভাবে সচ্ছল হওয়ায় সমাজে নব্য ধনিক শ্রেণীর উদ্ভব হচ্ছে । আর এরা অল্পশিক্ষিত বলে সামাজিক বৈষম্য দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে ।

২. আঞ্চলিক বৈষম্য : বাংলাদেশের সব অঞ্চলের লোক সমহারে বিদেশে গমন করে না । বিশেষ কিছু অঞ্চলের প্রত্যেক বাড়ি থেকেই লোকজন বিদেশে কর্মরত আছে । আবার অনেক অঞ্চলের কোন লোকই বিদেশে কর্মরত নেই । সুতরাং জনশক্তি রপ্তানির ফলে দেশে আঞ্চলিক বৈষম্য দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে ।

৩. জমির মালিকানা : জনসংখ্যা রপ্তানির ফলে গ্রামাঞ্চলে কৃষিজমির মালিকানা এক শ্রেণীর লোকের হাতে কেন্দ্রীভূত হয়ে পড়ছে । প্রবাসী বাংলাদেশিদের উপার্জিত অর্থের সিংহভাগ জমি ক্রয়ে ব্যয় করা হয় । ফলে বাংলাদেশের কৃষিজমি ক্রমশ প্রবাসী শ্রমিক পরিবারগুলোর হাতে কেন্দ্রীভূত হয়ে পড়ছে । আবার অনেক মালিক গ্রামাঞ্চলে বসবাস না করায় অনুপস্থিত ভূস্বামীর সৃষ্টি হচ্ছে ।

৪. পারিবারিক সমস্যা : জনসংখ্যা রপ্তানির ফলে বিভিন্ন পারিবারিক সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে । প্রবাসী শ্রমিকদের অধিকাংশ তাদের পরিবার পরিজনকে বাংলাদেশে রেখে যায় । আবার অনেকে ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও স্ত্রী ও পুত্র – কন্যাকে সাথে নিয়ে যেতে পারে না । প্রবাসী শ্রমিকেরা বছরের পর বছর পরিবার পরিজন থেকে দূরে থাকার ফলে অনেক সময় ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয় এবং পারিবারিক বন্ধন শিথিল হতে থাকে । এসব কারণে বাংলাদেশে বর্তমানে বিবাহ বিচ্ছেদ , আত্মহত্যা ও অন্যান্য সামাজিক অপরাধ বৃদ্ধি পাচ্ছে ।

৫. সামাজিক মূল্যবোধ : জনসংখ্যা রপ্তানির ফলে সামাজিক মূল্যবোধেও পরিবর্তন সূচিত হয়েছে । যারা বিদেশে কর্মরত তারা প্রচুর অর্থ উপার্জন করছে আর যারা দেশে রয়েছে তারা অপরিসীম দুঃখ দুর্দশার মধ্যে দিনপাত করছে । প্রবাসীরা অর্থের মালিক হচ্ছে আর দেশের বেকার তরুণরা মারাত্মক হাতাশায় ভুগছে । এর ফলে সামাজিক মূল্যবোধ দিন দিন ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে ।

৬. দুর্নীতি ও দুরাচার : জনশক্তি রপ্তানির ফলে দেশে দুর্নীতির জন্ম হচ্ছে । বিদেশ গমনের লোভে এদেশের বহু শিক্ষিত ও অশিক্ষিত মানুষ ভুয়া এজেন্সিগুলোর দ্বারা প্রতারিত হয়ে সর্বস্বান্ত হয়েছে ।

৭. নারী ও শিশু পাচার : জনশক্তি রপ্তানির নামে অনেক সময় দেশ থেকে নারী ও শিশু পাচার করা হয় । এর বিরুদ্ধে সরকার যথেষ্ট সতর্ক ও তৎপর থাকা সত্ত্বেও বাংলাদেশ থেকে প্রচুর নারী ও শিশু সমাজবিরোধীদের মাধ্যমে বিদেশে পাচার হয়ে যাচ্ছে ।

উপসংহার : সুতরাং উপর্যুক্ত আলোচনা থেকে আমরা এ সিদ্ধান্তে উপনীত হতে পারি যে , জনশক্তি রপ্তানির যেমন ভালো দিক আছে তেমন মন্দ দিকও আছে । তাই আমাদেরকে সমস্ত মন্দ দিক পরিহার করে দেশের উন্নয়নের স্বার্থে অধিক হারে জনশক্তি বিদেশে রপ্তানি করা উচিত ।

[ad_2]



পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!