ডিগ্রী ৩য় বর্ষ ২০২২ সকল বিষয়ের রকেট স্পেশাল সাজেশন ফাইনাল সাজেশন প্রস্তুত রয়েছে মূল্য মাত্র ২৫০টাকা প্রতি বিষয় এবং ৭ বিষয়ের নিলে ১৫০০টাকা। সাজেশন পেতে দ্রুত যোগাযোগ ০১৯৭৯৭৮৬০৭৯
ডিগ্রী তৃতীয় বর্ষ এবং অনার্স প্রথম বর্ষ এর রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে যোগাযোগ করুন সাজেশন মূল্য প্রতি বিষয় ২৫০টাকা। Whatsapp +8801979786079

প্রত্যয়ের কার্যাবলি উল্লেখ কর।

প্রশ্ন ১৬৷ প্রত্যয়ের কার্যাবলি উল্লেখ কর।
ধারণার কর্মকাণ্ড উল্লেখ কর।
অথবা, প্রত্যেয়ের কার্যাবলিসমূহ লিখ।
অথবা, ধারণার কার্যাবলিগুলো তুলে ধর।


উত্তর ৷ ভূমিকা : প্রত্যয়ের মাধ্যমেই সামাজিক প্রপঞ্চ সম্পর্কে একটি ধারণা লাভ করা যায়। সামাজিক গবেষণার ক্ষেত্রে প্রত্যয় একটি গুরুত্ব ও তাৎপর্যপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে ।

প্রত্যয়ের কার্যাবলি : প্রত্যয় নিম্নোক্ত চারটি প্রধান কার্যাবলি সম্পন্ন করে থাকে :
১. সাধারণ ভাষা :
Concepts provide a common language, which enables scientists to communicate with one another. অর্থাৎ, প্রত্যয় সাধারণ ভাষা প্রস্তুত করে যাতে বিজ্ঞানীরা একে অন্যের সাথে যোগাযোগ করতে সক্ষম হয়।


২. দৃষ্টিভঙ্গি : Concepts giver scientists a perspective- a way of looking at phenomena. অর্থাৎ, প্রত্যয় বিজ্ঞানীদেরকে দৃষ্টিভঙ্গি প্রদান করে এবং প্রপঞ্চসমূহের পথনির্দেশনা প্রদান করে ।


৩. শ্রেণিবিন্যাস এবং সাধারণীকরণ : Concepts allow scientists to classify their experiences and to generalize from them. অর্থাৎ, প্রত্যয় বিজ্ঞানীদেরকে তাদের অভিজ্ঞতা এবং তা থেকে সাধারণীকরণ করার অনুমতি দেয় ।

৪. তত্ত্বের উপাদান : Concepts are components of theories – They define theory’s content and attributes. অর্থাৎ, এত্যয় হচ্ছে তত্ত্বের উপাদান—এগুলো তত্ত্বের বিষয়বস্তু এবং গুণাবলিকে সংজ্ঞায়িত করে । তাছাড়া এটি তত্ত্বের ভবিষদ্বাণীও করে থাকে ।


উপসংহার : উপর্যুক্ত আলোচনা থেকে বলা যায়, প্রত্যয় থেকে মূলত সামাজিক প্রপঞ্চ সম্পর্কে জ্ঞান লাভ হয়। প্রত্যয় প্রধান ৪টি কার্যাবলি সম্পন্ন করে থাকে ।



পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!