ডিগ্রি প্রথম এবং অনার্স দ্বিতীয় বর্ষ ২০২৩ এর সকল বিষয়ের রকেট স্পেশাল ফাইনাল সাজেশন প্রস্তুত রয়েছে মূল্য মাত্র ২৫০টাকা প্রতি বিষয় এবং ৭ বিষয়ের নিলে ১৫০০টাকা। সাজেশন পেতে দ্রুত যোগাযোগ ০১৯৭৯৭৮৬০৭৯

 ডিগ্রী সকল বই

হিন্দু-মুসলমান সমস্যা যেভাবে উঠেছে তা একই সঙ্গে হিন্দু মুসলমানের দুর্দশার প্রমাণ।”— বুঝিয়ে দাও।

উৎস : আলোচ্য অংশটুকু বুদ্ধিনিষ্ঠ প্রবন্ধকার কাজী আবদুল ওদুদ বিরচিত ‘বাংলার জাগরণ’ শীর্ষক প্রবন্ধ থেকে চয়ন
প্রসঙ্গ : ঊনবিংশ শতাব্দীর ধর্মচর্চায় হিন্দু-মুসলমান উভয় সম্প্রদায়ের অনৈক্য ও অসহিষ্ণুতা প্রসঙ্গে প্রবন্ধকার মন্তব্যটি করেছেন ।
বিশ্লেষণ : ভারতীয় উপমহাদেশে হিন্দু-মুসলিম সমস্যা যে কোনো সফল আন্দোলনের ক্ষেত্রে বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়েছে বার বার। বাংলার জাগরণে হিন্দু ও মুসলিম উভয় সম্প্রদায়ের মানুষই তাদের নানা পশ্চাৎপদতার কারণে স্বতঃস্ফূর্তভাবে সাড়া দিতে পারেনি। এতে হিন্দু ও মুসলমান উভয় সম্প্রদায়ের দুর্দশারই প্রমাণ মেলে। মুসলমানের দুর্দশা এজন্য যে এ সংগ্রামে সে যেভাবে জয়ী হবা স্বপ্ন দেখে তা থেকে বুঝতে পারা যায় তার স্বপ্ন দেখারই অবস্থা। বাস্তবিক মুসলমানের অবস্থা খুবই বিস্ময়কর। এতদিন ধরে পরিবর্তিত অবস্থায় বাস করেও তন্দ্রার ঘোরে দুই একটি প্যান ইসলামি বোলচাল দেওয়া ভিন্ন পারিপার্শ্বিক অবস্থা সম্বন্ধে কোনরূপ জাগ্রতচিত্ততার পরিচয় আজ পর্যন্ত সে দিতে পারেনি। আর হিন্দুর জন্য আফসোস এজন্য যে তার এত সংস্কার চেষ্টা, এত সাধনা সত্ত্বেও এ সমস্যার একটা মীমাংসা করবার সামর্থ্য তার হয়নি। এ হিন্দু-মুসলমান সমস্যা যেন হিন্দু-মুসলমান উভয়েরই আচ্ছন্ন দৃষ্টির সামনে বিধাতার জ্বালা এক তীব্র আলো। হিন্দু মুসলমান উভয় সম্প্রদায়ের বিচ্ছিন্ন দৃষ্টিভঙ্গি এবং চিন্তার অনগ্রসরতা বাংলার জাগরণের গতিকে স্তিমিত করেছে। বর্তমান জগতের জ্ঞান ও কর্মে আমাদের দুর্বল অবস্থান হিন্দু মুসলিম সমস্যারই ফল।
মন্তব্য: বাংলার জাগরণে হিন্দু ও মুসলমান স্ব-স্ব অবস্থান থেকে মুক্ত মন নিয়ে এগিয়ে এলে জাতি হিসেবে আমরা আরো উন্নত হতে পারতাম।



পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!