রকেট সাজেশনরকেট সাজেশন

অথবা, কী কারণে শাসন বিভাগের ক্ষমতা বৃদ্ধি পাচ্ছে?
অথবা, বর্তমানে শাসন বিভাগের ক্ষমতা কেন বৃদ্ধি পাচ্ছে?

উত্তরা ভূমিকা : বর্তমান যুগে পৃথিবীর প্রত্যেকটি রাষ্ট্রে শাসন বিভাগের ক্ষমতা অত্যধিক বৃদ্ধি পেয়েছে।বর্তমান শতাব্দীর শুরু থেকেই আইনসভার ক্ষমতা ধীরে ধীরে হ্রাস পাচ্ছে। পাশাপাশি শাসন বিভাগের ক্ষমতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। এসম্পর্কে বার্কার বলেন, “ঊনবিংশ শতকে যেমন আইন পরিষদের ক্ষমতা বৃদ্ধি ঘটেছিল বিংশ শতকে শাসন বিভাগের ক্ষমতা সেই গতিতে সম্পন্ন হচ্ছে।

শাসন বিভাগের ক্ষমতা বৃদ্ধির কারণ : নিম্নে শাসন বিভাগের ক্ষমতা বৃদ্ধির কারণ আলোচনা করা হলো :

১. আইনসভার দুর্বলতা আধুনিক কালে আইনসভার সদস্যদের অযোগ্যতার কারণে জনগণ তাদের প্রতি আস্থা
হারাচ্ছে। এ প্রেক্ষিতে শাসন বিভাগের উত্থান হচ্ছে।

২. শাসনকার্যে জটিলতা আধুনিক কালে শাসনকার্য ক্রমশ জটিল হয়ে পড়ছে। এমনসব জটিল কাজ শাসন বিভাগের সাহায্য ছাড়া সম্ভব নয়। এসব কাজ সমাধান শাসন বিভাগের ক্ষমতা বৃদ্ধি করছে।

৩. জনকল্যাণমূলক কাজ : আধুনিক রাষ্ট্র জনকল্যাণমূলক রাষ্ট্র। তাই সরকারকে জনস্বার্থে প্রচুর কাজ করতে হয় যা- আইনসভার পক্ষে একা সম্ভব নয়। এক্ষেত্রে শাসন বিভাগ তাদের দক্ষতা ধারা এসব কাজ সম্পাদন করছে এবং তাদের ক্ষমতা বৃদ্ধি করছে।

৪. জনমত গঠন : অতীতে জনমত গঠনে আইনসভা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করলেও বর্তমানে অনেক ক্ষেত্রে তারা
ব্যর্থ। এ সুযোগে শাসন বিভাগ বিভিন্ন কাজের মাধ্যমে জনমত গঠন করছে এবং তাদের ক্ষমতা বৃদ্ধি করছে।

৫. জাতীয় মুখপাত্র: দেশের প্রধান নির্বাহী সমগ্র জাতির মুখপাত্র হিসেবে সরকার পরিচালনার ক্ষেত্রে যথেষ্ট ভূমিকা পালন করেন। সরকারের কার্যক্রম পরিচালনায় তার ভাবমূর্তি বিশেষ প্রভাব বিস্তার করে। এ কারণে শাসন বিভাগের ক্ষমতা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

উপসংহার: আলোচনার শেষ প্রান্তে এসে আমরা বলতে পারি, আধুনিক কালে বিশ্বের সর্বত্র শাসন বিভাগের ক্ষমতা বৃদ্ধির প্রবণতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এ প্রবণতার জন্য বর্তমান বিশ্বের জটিল পরিস্থিতি দায়ী। আইন বিভাগের ক্ষমতা হ্রাস ও শাসন বিভাগের ক্ষমতা বৃদ্ধির অন্যতম কারণ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!