General Knowledge

বাংলাদেশ অক্সফামে মাঠকর্ম অনুশীলন/ ব্যবহারিক প্রশিক্ষণের ক্ষেত্র গুলো লিখ।

অথবা, বাংলাদেশ অক্সফামে সমাজকর্ম অনুশীলনের ক্ষেত্রসমূহ লিখ।
অথবা, বাংলাদেশ অক্সফামে ব্যবহারিক প্রশিক্ষনার্থীর ভূমিকা লিখ।
অথবা, বাংলাদেশ অক্সফামে ব্যবহারিক প্রশিক্ষণের পরিধি আলোচনা কর।
উত্তর।৷ ভূমিকা :
অক্সফাম বাংলাদেশ দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে আঞ্চলিক ও কমিউনিটি ভিত্তিক দারিদ্র্য বিমোচনে সহায়তা করে। প্রতিষ্ঠাটিতে মাঠকর্ম অনুশীলনকারী বা সমাজকর্মে ব্যবহারিক প্রশিক্ষণার্থীদের সংস্থাপন করা হয় এবং সেখানে তারা বহুবিধ ভূমিকা পালন করতে পারেন।
অক্সফামে মাঠকর্ম অনুশীলন/ ব্যবহারিক প্রশিক্ষণের ক্ষেত্র
নিম্নে অক্সফামে মাঠকর্ম অনুশীলনকারী বা সমাজকর্মে ব্যবহারিক প্রশিক্ষণার্থীদের ভূমিকা সংক্ষেপে আলোচনা করা হলো :
১. নদী অববাহিকা কার্যক্রম : বাংলাদেশে অক্সফাম বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের উন্নয়নে কাজ করে। অক্সফাম বন্যার কবল হতে মানুষকে উদ্ধার করতে সাহায্য করে। প্রতিষ্ঠানটি মানুষ, গবাদি পশু, গুরুত্বপূর্ণ গৃহসামগ্রী ও সম্পদ নিরাপদ আশ্রয়ে নিয়ে আসতে সাহায্য করে। এছাড়া বাড়ির আঙিনা উঁচু করা, বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণ ইত্যাদি ক্ষেত্রেও অক্সফাম ভূমিকা রাখে। মাঠকর্ম অনুশীলনকারী বা সমাজকর্মে ব্যবহারিক প্রশিক্ষণার্থীরা অক্সফামে কাজ করতে এসে নদী অববাহিকার মানুষকে বা বন্যা আক্রান্ত এলাকার মানুষকে বন্যা সম্পর্কে ধারণা দিতে পারে। তাছাড়া বন্যাপূর্ব, বন্যার সময় ও বন্যা পরবর্তী সময়ে এসব এলাকার মানুষের করণীয় সম্পর্কেও মাঠকর্ম অনুশীলনকারীরা ধারণা দিতে পারে।
২. সমুদ্র উপকূল কর্মসূচি : অক্সফাম বাংলাদেশের সমুদ্র উপকূলীয় মানুষদের জন্যও তার কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। এদেশের প্রায় ৬০০ কিলোমিটার সম্পদ উপকূলীয় অঞ্চলে মাঝে মাঝেই সাইক্লোন, জলোচ্ছ্বাস ইত্যাদি সমস্যা দেখা দেয়। অক্সফাম সমুদ্র উপকূলীয় জনসাধারণের জানমালের নিরাপত্তার জন্য অনেক সময় তথ্য প্রদান করে সহায়তা করে। তাছাড়া ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদেরকে পুনর্বাসনের ক্ষেত্রেও অক্সফাম সাহায্য করে থাকে। মাঠকর্ম অনূমীলনকারী বা সমাজকর্মে ব্যবহারিক প্রশিক্ষণার্থীরা অক্সফামের এসব কাজে মানুষকে সমাজকর্মের কৌশল ও পদ্ধতি প্রয়োগ করে সাহায্য করতে পারে।
৩. জরুরি সহায়তা কার্যক্রম : অক্সফাম মূলত দুর্যোগকবলিতদের জরুরি সাহায্য প্রদান করে থাকে। বন্যা, খরা,জলোচ্ছ্বাস, ঘূর্ণিঝড় ইত্যাদি কারণে অনেক মানুষ স্বজনহারা, গৃহহারা ও সম্পদহারা হয়ে পড়ে। এসব মানুষকে অক্সফাম খাদ্য সহায়তা বা নগদ অর্থ সহায়তা; বাসস্থান নির্মাণে সহায়তা ও স্বাবলম্বী হতে সহায়তা করে। মাঠকর্ম অনুশীলনকারী বা ব্যবহারিক প্রশিক্ষণার্থীরা এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পরামর্শ সহযোগীতা প্রদান করতে পারে। তাছাড়া তারা দুর্যোগ কবলিত এলাকায় কাজ করতে গেলে প্রয়োজনে দুর্যোগ মোকাবিলার জন্য স্বেচ্ছাসেবী দল গঠন করতে পারে।
৪. দারিদ্র্য বিমোচন : অক্সফাম দারিদ্র্যের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। এ কারণে অক্সফাম দারিদ্র্য বিমোচনেও মানুষকে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে সাহায্য করে। মাঠকর্ম অনুশীলনকারী বা ব্যবহারিক প্রশিক্ষণার্থীরাও অক্সফামের এ দরিদ্র বিমোচন কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করতে পারে। তারা এক্ষেত্রে সমাজকর্মের পদ্ধতি ও কৌশল প্রয়োগ করতে পারে।
৫. অংশীদারিত্বের মাধ্যমে কাজ : অক্সফাম স্থানীয় বিভিন্ন সংস্থাকে তাদের উন্নয়নমূলক তৎপরতাতে সহায়তা দেয় যাতে সে সংস্থা সংশ্লিষ্ট এলাকার জনসাধারণের জন্য তাদের কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে সক্ষম হয়। মাঠকর্ম অনুশীলনকারী বা ব্যবহারিক প্রশিক্ষণার্থীরাও অক্সফামের এ কাজে সহায়ক ভূমিকা পালন করতে পারে।
৬. উপদেশ ও নির্দেশনা : বিগত প্রায় ৬০ বছরের অভিজ্ঞতার আলোকে অক্সফাম তার পরামর্শকগণের দ্বারা বেশি বেশি ফসল উৎপাদন করার উপায়, দরিদ্র জনসমষ্টিকে চিকিৎসার জন্য স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রশিক্ষণ ইত্যাদির মাধ্যমে সহায়তা করে থাকে। এক্ষেত্রে সমাজকর্মীরাও ভূমিকা রাখার সুযোগ পায় ।
৬. জলবায়ু পরিবর্তন প্রেক্ষাপটে কার্যাবলি : বিশ্বের জলবায়ু দ্রুত পরিবর্তিত হচ্ছে। ভবিষ্যতে মেরু অঞ্চলের রবফ গলে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে এবং হিমালয়ের বরফ গলতে শুরু করেছে। এতে ধারণা করা হচ্ছে সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বেড়ে যাবে এবং পৃথিবীর অনেক অঞ্চল পানির নিচে তলিয়ে যাবে। সেই সাথে অনেক ফসলি জমি লবণাক্ত হয়ে ফসল উৎপাদন ব্যাহত হবে। এক্ষেতে মাঠকর্ম অনুশীলনকারী বা ব্যবহারিক প্রশিক্ষণার্থীরা অক্সফামের কার্যক্রমের সাথে যুক্ত হয়ে নিমোক্ত কাজগুলো সম্পাদনে সাহায্য করতে পারে-
ক. জলবায়ু পরিবর্তন ও এর ফলশ্রুতিতে বিরাজমান অবস্থা নিয়ে মানুষকে সচেতন করে তোলার উদ্যোগ গ্রহণ ।
খ. দুর্যোগের খবর, ভিডিও এবং জলবায়ু পরিবর্তনের সাথে দারিদ্র্যের সম্পর্ক নিয়েও কাজ করা।
গ. জলবায়ু পরিবর্তনের সাথে তাল মিলিয়ে চলার জন্য অক্সফাম তাদের অভিজ্ঞতা বিনিময় করা।
ঘ. ত্রাণ সহায়তা প্রদান।
ঙ. যেসব ফসল বাংলাদেশে দ্রুত ঘরে তোলা যায় এমন ফসল চাষকে উৎসাহ প্রদান ।
চ. ভাসমান সবজি বাগান তথা ভাসমান ক্ষেতে ফসল উৎপাদন করার কৌশল শিক্ষা দেয়া।
৭. শিক্ষা কার্যক্রম : অক্সফাম শিক্ষা প্রসারের ক্ষেত্রেও ভূমিকা পালন করে আসছে। অক্সফাম মূলত নিম্নোক্ত উপায়ে শিক্ষা কার্যক্রমকে গতিশীল রাখতে সহায়তা করে-
ক. শিক্ষা প্রচারাভিযান পরিচালনা;
খ. বিশ্ব নেতৃবৃন্দকে শিক্ষা সহায়তা ও শিক্ষক প্রশিক্ষণে সহায়তার জন্য উদ্বুদ্ধকরণ;
গ. স্থানীয়, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে শিক্ষান্নোয়নে প্রচেষ্টা চালাতে সহায়তা;
ঘ. জনসাধারণকে শিক্ষা প্রশিক্ষণ সহায়তা;
মাঠকর্ম অনুশীলনকারী বা ব্যবহারিক প্রশিক্ষণার্থীরা শিক্ষা প্রচারাভিযান, শিক্ষা সহায়তা ও শিক্ষক প্রশিক্ষণে সহায়তার জন্য উদ্বুদ্ধকরণ ও জনসাধারণকে শিক্ষা প্রশিক্ষণ সহায়তা করতে পারে।
৯. লিঙ্গ সমতা : অক্সফাম লিঙ্গ বৈষম্য দূরীকরণ তথা লিঙ্গ সমতার উন্নয়নেও কাজ করে। বাংলাদেশসহ অক্সফাম বিশ্বব্যাপী লিঙ্গ সমতার উন্নয়নে বিভিন্ন উপায়ে কাজ করে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে অক্সফাম-
i. নারীদের মৌলিক অধিকার প্রতিষ্ঠা;
ii. স্থানীয় নারীকল্যাণ সংস্থাকে প্রশিক্ষণের জন্য তহবিলের যোগান;
iii. পারিবারিক নির্যাতনের কবল থেকে নারীদের উদ্ধারে সহায়তা ও
iv. লিঙ্গ সমতায় প্রচারাভিযান পরিচালনা প্রভৃতি উপায়ে সহায়তা প্রদান করে থাকে।
মাঠকর্ম অনুশীলনকারী বা ব্যবহারিক প্রশিক্ষণার্থীরা লিঙ্গবৈষম্য দূরীকরণ তথা লিঙ্গ সমতার উন্নয়নে উপর্যুক্ত কাজগুলো সম্পাদন করতে পারে।
১০. আদিবাসী উন্নয়ন : অক্সফাম বাংলাদেশ এদেশে আদিবাসী বা উপজাতীয়দের উন্নয়নে বিশেষ ভূমিকা রাখছে।পশ্চাৎপদ উপজাতিদের মধ্যে নেতৃত্বের বিকাশ, নারীর ক্ষমতায়ন, অধিকার সচেতনতা, সম্পদ আহরণে সমষ্টিকে সহায়তা, সংস্কৃতির উন্নয়ন প্রভৃতি উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে ১৯৯৩ সাল থেকে অক্সফাম কাজ করে যাচ্ছে। মাঠকর্ম অনুশীলনকারী বা ব্যবহারিক প্রশিক্ষণার্থীদেরও এ ধরনের কাজে সম্পৃক্ত হবার সুযোগ রয়েছে।
উপসংহার : উপর্যুক্ত কার্যাবলি ছাড়াও অক্সফাম বাংলাদেশে মাঠকর্ম অনুশীলনকারী বা ব্যবহারিক প্রশিক্ষণার্থীরা আরো যেসব কাজ করতে পারে সেগুলো হলো : ত্রাণকার্য পরিচালনা; ভূমির সর্বোত্তম সদ্ব্যবহারে সহায়তা; মানুষের বিশেষ করে নারীদেরকে আইনগত সহায়তা; পঙ্গু, উপজাতী য় এবং যৌন কর্মীদের ক্ষমতায়নের সহায়তা; পোশাক শিল্পে কর্মের মহিলাদের আইনগত সহায়তা; দুর্যোগ মোকাবিলা ও বন্যার আগাম সতর্কীকরণ; আর্সেনিক সমস্যা সমাধানে সহায়তা ও কর্মসংস্থানের সুযোগ প্রদান ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!