ডিগ্রী ৩য় বর্ষ ২০২২ ইংরেজি রকেট স্পেশাল সাজেশন ফাইনাল সাজেশন প্রস্তুত রয়েছে মূল্য মাত্র ২৫০টাকা সাজেশন পেতে দ্রুত যোগাযোগ ০১৯৭৯৭৮৬০৭৯
ডিগ্রী তৃতীয় বর্ষ এবং অনার্স প্রথম বর্ষ এর রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে যোগাযোগ করুন সাজেশন মূল্য প্রতি বিষয় ২৫০টাকা। Whatsapp +8801979786079
Earn bitcoinGet 100$ bitcoin

বাংলাদেশে শিল্পের পশ্চাৎপদতার কারণসমূহ চিহ্নিত কর ।

[ad_1]

✍️বাংলাদেশে শিল্পের পশ্চাৎপদতার কারণসমূহ চিহ্নিত কর ।

উত্তর ভূমিকা : আধুনিক যান্ত্রিক সভ্যতার অন্যতম আশীর্বাদ হলো শিল্পোন্নয়ন । অষ্টাদশ শতাব্দীতে পাশ্চাত্য সমাজে এক বিপ্লবের মাধ্যমে শিল্পায়ন আত্মপ্রকাশ করে । পৃথিবীর আয়তনের তুলনায় ক্রমবর্ধমান মানুষের দৈনন্দিন জীবনের চাহিদা পুরণের জন্য উৎপাদনের কৌশলগত পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে শিল্পায়ন সমাজব্যবস্থার এক যুগান্তর অবদান রাখে । বিশ্বের অন্যান্য দেশে গতানুগতিক জীবনধারার বেড়াজাল ছিন্ন করে সুখি সমৃদ্ধি জীবন গড়ার লক্ষ্যে বিস্তৃতি ঘটলেও বাংলাদেশ শিল্পক্ষেত্রে অনুন্নতই রয়ে গেছে । শিল্পের প্রয়োজনীয় কাঁচামাল , প্রাকৃতিক সম্পদ ও পর্যাপ্ত জনশক্তি থাকা সত্ত্বেও বাংলাদেশ শিল্পক্ষেত্র পশ্চাৎপদ রয়েছে । বিভিন্ন আর্থসামাজিক কারণে এদেশের শিল্পায়নের পথে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের প্রতিবন্ধকতা ।

বাংলাদেশে শিল্পায়নের পশ্চাৎপদতার কারণসমূহ : বাংলাদেশের অর্থনেতিক উন্নয়নের জন্য শিল্পায়নের গুরুত্ব অপরিসীম । বাংলাদেশ একটি কৃষিপ্রধান দেশ । এদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে কৃষির পাশাপাশি শিল্পায়ন একান্তই অপরিহার্য । কিন্তু দুভার্গ্যজনকভাবে বাংলাদেশ শিল্প ক্ষেত্রে আশানুরূপ সাফল্য অর্জিত হয় নি । বাংলাদেশ অনগ্রসর থাকার পশ্চাতে নানাবিধ কারণ বিদ্যমান ।

বাংলাদেশের শিল্প অনগ্রসরতার কারণগুলো নিম্নে আলোচনা করা হলো :

১. ব্রিটিশ সরকারের ঔপনিবেশিক নীতি : বাংলাদেশের শিল্প অনগ্রসরতার অন্যতম প্রধান কারণ হলো ব্রিটিশ সরকারের ঔপনিবেশিক নীতি । ইংরেজরা প্রায় ২০০ বছর যাবৎ অবিভক্ত ভারতবর্ষে রাজত্ব করে । কিন্তু এ অঞ্চলে শিল্পকারখানা গড়ে তোলার ব্যাপারে তাদের কোন আগ্রহ ছিল না । তারা ভারতবর্ষকে নিজ দেশের শিল্পের কাঁচামালের উৎস হিসেবে এবং শিল্পজাত পণ্যের বাজার হিসেবেই ব্যবহার করে । ব্রিটিশ সরকারের এ ঔপনিবেশিক নীতি বাংলাদেশের শিল্প অনগ্রসরতার জন্য অনেকাংশ দায়ী ছিল ।

২. পাকিস্তানি শোষণ : পাকিস্তান সরকারের অর্থনীতিতে বৈষম্যমূলক আচরণের কারণেও বাংলাদেশে শিল্পের উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি সাধিত হয় নি । পাকিস্তানি আমলের ২৪ বছরে তদানীন্তন শাসকগোষ্ঠী ইংরেজদের মতোই এ অঞ্চলকে শোষণ করে । তারা এদেশের কষ্টার্জিত বৈদেশিক মুদ্রার সিংহভাগই সাবেক । পাকিস্তানে শিল্প স্থাপনে ব্যয় করে ব্রিটিশদের ন্যায় পাকিস্তান সরকারও বাংলাদেশকে কাঁচামাল সরবরাহকারী এবং শিল্পপণ্য বিক্রয়ের বাজারে পরিণত করে ।

৩. মূলধনের অভাব : মূলধনের অভাব আমাদের দেশে শিল্পের অনগ্রসরতার একটি প্রধান কারণ । দারিদ্র্যের অভিশাপে জনসাধারণের সঞ্চয় অত্যন্ত কম বলে শিল্পের জন্য প্রয়োজনীয় মূলধন সংগ্রহ করা আমাদের পক্ষে কঠিন হয়ে পড়েছে । পুঁজির অভাবে আমাদের শিল্পোন্নয়নের গতি মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে ।

৪. দক্ষ শ্রমিকের অভাব : বাংলাদেশে কর্মক্ষম লোকসংখ্যা অনেক বেশি হলেও তাদের অধিকাংশই অশিক্ষিত , অদক্ষ ও অযোগ্য শ্রমিক । ফলে শ্রমকুশলতার অভাবে শিল্পায়নের বাধাপ্রাপ্ত হচ্ছে ।

৫. খনিজ সম্পদের অভাব : দেশের দ্রুত শিল্পায়নের জন্য খনিজ সম্পদ একান্ত প্রয়োজন । কিন্তু বাংলাদেশ খনিজ সম্পদে সমৃদ্ধ নয় । লোহা , কয়লা প্রভৃতি খনিজ সম্পদ শিল্পোয়নের জন্য অপরিহার্য । কিন্তু আমাদের দেশে এগুলোর কোনটিই নেই । এতে আমাদের শিল্পোয়নের বিঘ্নিত হচ্ছে ।

৬. শিল্প ঋণের অভাব : সহজ শর্তে পর্যাপ্ত ঋণের যোগান শিল্পায়নের জন্য অপরিহার্য । কিন্তু আমাদের দেশে এগুলোর কোনটিই নেই । এতে আমাদের শিল্পান্নয়ন বিঘ্নিত হচ্ছে ।

৭. কাঁচামালের অভাব : বাংলাদেশের কতিপয় কাঁচামালের চাহিদা বিদেশের বাজারে যথেষ্ট সুনাম আছে স্বাধীনতার পরেও শিল্প স্থাপনের মাধ্যমে এসব কাঁমামাল ব্যবহারের চেষ্টা না করে সেগুলোকে আগের মতোই বিদেশে রপ্তানি করা হচ্ছে ।

৮. শক্তি সম্পদের অভাব : কারখানা পরিচালনার জন্য শক্তি সম্পদের বিশেষ প্রয়োজন । কিন্তু বাংলাদেশে শক্তি সম্পদের যথেষ্ট অভাব রয়েছে । বাংলাদেশে যে পরিমাণ কয়লা ও তেল পাওয়া যায় তা আমাদের প্রয়োজনের পক্ষে যথেষ্ট নয় । তাই শক্তি সম্পদের অভাব বাংলাদেশের শিল্পে অনগ্রসরতার অন্যতম কারণ ।

৯. সরকারি নিয়ন্ত্রণ : স্বাধীনতার পর বাংলাদেশের সকল বৃহদায়তন শিল্প প্রতিষ্ঠান সরকারিকরণ করা হয় । পরবর্তীকালে শিল্পখাতের বেসরকারিকরণ কার্যক্রম শুরু হলেও এদেশের শিল্প স্থাপন বিভিন্ন সরকারি নিয়মকানুনের বেড়াজালে আবদ্ধ । এটি আমাদের শিল্পখাতের স্থবিরতার একটি প্রধান কারণ ।

১০. যন্ত্রপাতির অভাব : ভারি শিল্পের অভাব দেশে শিল্পের প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি একান্ত অভাব রয়েছে । যন্ত্রপাতির অভাবে আমাদের শিল্পায়ন ব্যাহত হচ্ছে ।

উপসংহার : পরিশেষে বলা যায় যে , উপর্যুক্ত বিষয়গুলোই বাংলাদেশের শিল্পের পশ্চাৎপদতার কারণ ।

[ad_2]

পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন:01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!