ডিগ্রী ৩য় বর্ষ ২০২২ ইংরেজি রকেট স্পেশাল সাজেশন ফাইনাল সাজেশন প্রস্তুত রয়েছে মূল্য মাত্র ২৫০টাকা সাজেশন পেতে দ্রুত যোগাযোগ ০১৯৭৯৭৮৬০৭৯
ডিগ্রী তৃতীয় বর্ষ এবং অনার্স প্রথম বর্ষ এর রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে যোগাযোগ করুন সাজেশন মূল্য প্রতি বিষয় ২৫০টাকা। Whatsapp +8801979786079
Earn bitcoinGet 100$ bitcoin

বাংলাদেশের জনসংখ্যা সমস্যা সমাধানে মানব সম্পদ উন্নয়নের গুরুত্ব আলোচনা কর ।

প্রশ্নঃ বাংলাদেশের জনসংখ্যা সমস্যা সমাধানে মানব সম্পদ উন্নয়নের গুরুত্ব আলোচনা কর ।

উত্তরা ৷ ভূমিকা : বাংলাদেশের জনসংখ্যা সমস্যা সমাধানে মানব সম্পদ উন্নয়নের গুরুত্ব অপরিসীম । এদেশের সবচেয়ে বড় সমস্যা হচ্ছে জনসংখ্যা সমস্যা । এখানে প্রতি বর্গকিলোমিটারে প্রায় ১০০০ জন মানুষ বাস করে । এ জনসংখ্যার ঘনত্ব পৃথিবীর মধ্যে সর্বোচ্চ । মোট জনসংখ্যার প্রায় এক – তৃতীয়াংশই বেকার । ফলে প্রয়োজন দ্রুত অর্থনৈতিক উন্নয়ন । মূলধন ও প্রাকৃতিক সম্পদ অর্থনৈতিক উন্নয়নের পূর্বশর্ত । তবে শুধুমাত্র মূলধন এবং প্রাকৃতিক সম্পদ অর্থনৈতিক উন্নতির পর্যাপ্ত শর্ত নয় । কারণ মূলধন ও প্রাকৃতিক সম্পদ ব্যবহারের জন্য দক্ষ শ্রমশক্তির প্রয়োজন । তাই মানব সম্পদ উন্নয়নই হলো অর্থনৈতিক উন্নয়নের অপরিহার্য শর্ত ।

নিম্নে জনসংখ্যা সমস্যা সমাধানে মানব সম্পদ উন্নয়নের গুরুত্ব আলোচনা করা হলো :

১. মানব সম্পদ রপ্তানি : বিশ্বে দক্ষ শ্রমিকের বিস্তৃত বাজার রয়েছে । আর সে কারণে সেখানে শ্রমের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে । আমাদের জনাধিক্যের কারণে শ্রম সস্তা , ফলে বহির্বিশ্বে আমাদের শ্রমিকের ব্যাপক চাহিদা বিদ্যমান কিন্তু সমস্যা হচ্ছে আমাদের দেশের শ্রমিকরা অদক্ষ । সুতরাং মানব সম্পদ উন্নয়নের মাধ্যমে শ্রমিকের দক্ষতা বাড়িয়ে বিদেশে কাজে নিয়োগ করাতে পারলে একদিকে যেমন তাদের পাঠানো রেমিটেন্সে দেশের অর্থনীতি সবল হবে , অন্যদিকে তেমনি অভিবাসনের ফলে জনসংখ্যার চাপ কমবে ।

২. জনসংখ্যাকে সম্পদে পরিণত : বাংলাদেশের অধিকাংশ লোক অশিক্ষিত এবং রুগ্ন স্বাস্থ্যের অধিকারী । ফলে বাংলাদেশের শ্রমশক্তির উৎপাদন ক্ষমতা অতি নগণ্য । কিন্তু শিক্ষা , স্বাস্থ্য , সেবা ও স্বাস্থ্যকর বাসস্থান ইত্যাদির মাধ্যমে মানুষের দক্ষতা বাড়ানো যায় অর্থাৎ যদি মানব সম্পদ উন্নয়ন সম্ভব হয় , তবে এ বিকাশে জনসংখ্যাকে সম্পদে পরিণত করা যাবে । এভাবে জনসংখ্যাকে সম্পদে পরিণত করে জনাধিক্য সমস্যা লাঘব করা যায় ।

৩. অর্থনৈতিক উন্নয়ন : আধুনিক উন্নয়ন অর্থনীতিবিদদের মতে অর্থনৈতিক উন্নয়নের চাবিকাঠি মানব সম্পদ উন্নয়ন । ষাটের দশকে মনে করা হতো মূলধন গঠন হলেই উন্নয়ন হবে । কিন্তু অনুন্নত দেশগুলোর বাস্তবতা এই যে , শুধু মূলধন গঠন উন্নয়নের জন্য যথেষ্ট নয় , সাথে মানব সম্পদ উন্নয়ন প্রয়োজন । আধুনিক সংজ্ঞানুযায়ী সমাজের প্রতিটি মানুষের জীবনযাত্রার মানের উন্নয়ন হলেই তাকে অর্থনৈতিক উন্নয়ন বলা যায় । সুতরাং মানব সম্পদ উন্নয়ন সাধন করতে পারলেই জনসংখ্যা সমস্যা সমাধান হয়ে যায় । ল্পনা জনপ্রিয় করে তোলে।

৪. জনসংখ্যার অবস্থান্তর : জনগণের শিক্ষার ও মানসিকতার পরিবর্তনই পরিবা ফলে জনসংখ্যার অবস্থান্তর ঘটে । আর এ মনমানসিকতার পরিবর্তন ঘটানো যায় মানব সম্পদ উন্নয়নের মাধ্যমে । অতএব মানব সম্পদ উন্নয়নই জনসংখ্যার অবস্থান্তর ও জনসংখ্যা সমস্যার সমাধান ঘটাতে পারে ।

৫. কর্মসংস্থান বৃদ্ধি : বাংলাদেশের বেকার সমস্যা অত্যন্ত প্রকট , ৩৩ % জনগোষ্ঠী বেকার । কিন্তু আমাদের দেশে দক্ষ জনশক্তির যথেষ্ট অভাব রয়েছে । বেকারত্বের হ্রাসের জন্য দক্ষ শ্রমিকের সংখ্যা বৃদ্ধি করা একান্ত প্রয়োজন । মানব সম্পদ উন্নয়নের মাধ্যমে দক্ষ শ্রমিকের সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে এবং অর্থনৈতিক উন্নতি ত্বরান্বিত হবে সাথে সাথে জনসংখ্যার অধিক চাপ লাঘব হবে ।

৬. বাল্যবিবাহ রোধ : আমাদের দেশের জনসংখ্যার একটি অন্যতম বৈশিষ্ট্য হলো বাল্যবিবাহ । বাল্যবিবাহের ফলে একদিকে যেমন স্বাস্থ্যহানি ঘটিয়ে শ্রমের উৎপাদনশীলতা কমায় , তেমনি জনসংখ্যার বৃদ্ধির হারকে ত্বরান্বিত করে । সে কারণে জনসংখ্যা সমস্যা দূর করতে হলে বাল্যবিবাহ রোধ করতে হবে । প্রকৃত মানব উন্নয়ন হলে শিক্ষা সচেতনতা বৃদ্ধি পাবে এবং স্বাভাবিকভাবে বাল্যবিবাহ কমে যাবে । এর ফলে জনসংখ্যা সমস্যা দূরীভূত হবে ।

৭. উৎপাদন বৃদ্ধি : দক্ষ জনশক্তি উৎপাদন বৃদ্ধির সহায়ক । শ্রমের দক্ষতা বৃদ্ধি পেলে তাদের উৎপাদন ক্ষমতা বাড়ে । উৎপাদন ক্ষমতা বৃদ্ধি পেলে দেশের অর্থনৈতিক উন্নতি ত্বরান্বিত হয় এবং শ্রমিকের চাহিদা বাড়ে ফলে বেকারত্ব কমে , জনসংখ্যা সমস্যারও সমাধান হয় ।

৮. আয়ের সুষম বণ্টন : আমাদের জাতীয় আয়ের বণ্টন অত্যন্ত অসম । দেশের সমস্ত সম্পত্তি গুটি কয়েক লোকের হাতে কুক্ষিগত হয়ে আছে । অর্থনৈতিক উন্নয়ন ত্বরান্বিত করার সাথে সাথে আয়ের সুষম বণ্টন নিশ্চিত করতে হবে । আমাদের দেশের জনসংখ্যার মান নিম্নগামী হওয়ার পশ্চাতে আয়ের অসম বণ্টন দারুণভাবে দায়ী । আয়ের সুষম বণ্টন হলে আমাদের বিশাল জনসংখ্যা বোঝা না হয়ে জনসম্পদে পরিণত হবে । ফলে জনসংখ্যা সমস্যা সমাধান হবে ।

৯. জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার কমবে : মানব সম্পদ উন্নয়নের অন্যতম পূর্বশর্ত হচ্ছে মানুষকে শিক্ষিত করে গড়ে তোলা । আর মানুষ শিক্ষিত হলে তার মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধি পায় । দেশ ও জাতির কাছে নিজের দায়িত্ব ও কর্তব্যবোধের উদয় হয় এবং ফলে শিক্ষিত জনগোষ্ঠী বেশি সন্তানে আগ্রহী হয় না । এতে করে জনসংখ্যার বৃদ্ধির হার কমবে । জনসংখ্যার বৃদ্ধির হার কমলে জনসংখ্যা সমস্যার সমাধান হবে ।

উপসংহার : উপর্যুক্ত আলোচনা শেষে বলা যায় , বাংলাদেশের জনসংখ্যা সমস্যার সমাধান এবং দ্রুত অর্থনৈতিক উন্নয়নে মানব সম্পদ উন্নয়নের বিকল্প নেই । বাংলাদেশের বিশাল জনগোষ্ঠীকে শিক্ষা , স্বাস্থ্য ও স্বাস্থ্যকর গৃহায়নের মাধ্যমে দক্ষ করে গড়ে তুলতে পারলে এদেশের প্রধান সমস্যা জনসংখ্যা সমস্যা অবশ্যই দূর করা যাবে । সেই সাথে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের মাধ্যমে অর্থনৈতিক উন্নয়নও ত্বরান্বিত হবে ।

পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন:01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!