ডিগ্রী ৩য় বর্ষ ২০২২ ইংরেজি রকেট স্পেশাল সাজেশন ফাইনাল সাজেশন প্রস্তুত রয়েছে মূল্য মাত্র ২৫০টাকা সাজেশন পেতে দ্রুত যোগাযোগ ০১৯৭৯৭৮৬০৭৯
ডিগ্রী তৃতীয় বর্ষ এবং অনার্স প্রথম বর্ষ এর রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে যোগাযোগ করুন সাজেশন মূল্য প্রতি বিষয় ২৫০টাকা। Whatsapp +8801979786079
Earn bitcoinGet 100$ bitcoin

প্রশ্নঃ বাংলাদেশ সরকারের ব্যয়ের খাতসমূহ বর্ণনা কর ।

[ad_1]

প্রশ্নঃ বাংলাদেশ সরকারের ব্যয়ের খাতসমূহ বর্ণনা কর ।

উত্তর ৷ ভূমিকা : পৃথিবীর সকল দেশেই সরকারের ব্যয় সম্প্রতি অনেক বেড়েছে । উন্নয়নশীল দেশগুলোতেও সরকারি ব্যয় ক্রমেই বৃদ্ধি পাচ্ছে । বর্তমানে বাংলাদেশের জাতীয় আয়ের প্রায় বিশ শতাংশের সমান সরকারের ব্যয় । অতএব সরকারের ব্যয় এবং তার খাতওয়ারি বিভাজন অর্থনীতির জন্য অতি গুরুত্বপূর্ণ ।

বাংলাদেশ সরকারের ব্যয়ের খাতসমূহ : নিম্নে বাংলাদেশ সরকারের ব্যয়ের খাতগুলো বর্ণনা করা হলো :

ক . রাজস্ব ব্যয় : সরকারের চলতি ব্যয় নির্বাহের জন্য যে অর্থ ব্যয় করা হয় তাকে রাজস্ব ব্যয় বলে । এ ব্যয়ের ফলে কোন সম্পত্তি সৃষ্টি হয় না , যেমনটি উন্নয়ন ব্যয়ের ফলে হয় । এ রাজস্ব ব্যয় সরকারের রাজস্ব বাজেটে অন্তর্ভুক্ত থাকে । নিম্নে বিভিন্ন প্রকারের রাজস্ব ব্যয়ের বর্ণনা দেয়া হলো :

১. প্রতিরক্ষা : দেশের সার্বভৌমত্ব বজায় রাখার জন্য নিয়োজিত আছে সেনাবাহিনী , বিমানবাহিনী ও নৌবাহিনী । অতএব প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় , তিনটি বাহিনী এবং তৎসংক্রান্ত ব্যয়সমূহ অতি গুরুত্বপূর্ণ । ২০১০-১১ সালের বাজেটে এ খাতে ৯,০০০ কোটি টাকা ব্যয় ধার্য করা হয় । এ ব্যয় সরকারের মোট রাজস্ব ব্যয়ের প্রায় ৭ % ।

২. জনশৃঙ্খলা ও নিরাপত্তা : আইন , বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ব্যয় এ খাতে অন্তর্ভুক্ত আছে । এ খাতে ২০১০-১১ সালের বাজেটে ৬,৮৫০ কোটি টাকা ব্যয় ধার্য করা হয়েছে । এ ব্যয় মোট রাজস্ব ব্যয়ের প্রায় ৫ % ।

৩. সাধারণ জনপ্রশাসন : রাষ্ট্রপতির কার্যালয় , জাতীয় সংসদ , প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় , মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ , সংস্থাপন মন্ত্রণালয় ইত্যাদি সরকারের বিভিন্ন বিভাগের চলতি ব্যয় এ খাতে অন্তর্ভুক্ত । ২০১০-১১ সালের বাজেটে সাধারণ জনপ্রশাসন খাতে ৩৮,০০০ কোটি টাকা ব্যয় ধার্য করা হয়েছে । এ ব্যয় মোট রাজস্ব ব্যয়ের প্রায় ২৮ % ।

৪. স্বাস্থ্য : স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীনে দেশে যে ব্যয় হয় তা এ খাতে ধরা হয় । ২০১০-১১ সালের বাজেটে এ খাতে ৮,২০০ কোটি টাকা ব্যয় বরাদ্দ করা হয়েছে ।

৫. শিক্ষা : দেশে শিক্ষাব্যবস্থা চালু রাখার প্রধান দায়িত্ব সরকারের । তাই শিক্ষা মন্ত্রণালয় , প্রাথমিক ও গণশিক্ষা বিভাগ , বিভিন্ন শিক্ষা দপ্তর , বিশ্ববিদ্যালয় , কলেজ , স্কুল , প্রাথমিক বিদ্যালয় ইত্যাদির ব্যয় নির্বাহের জন্য রাজস্ব বাজেটে অর্থ বরাদ্দ করা হয় । ২০১০-১১ সালের বাজেটে শিক্ষাখাতের জন্য ১৮,৫০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে যা মোট রাজস্ব ব্যয়ের প্রায় ১৪ % ।

৬. গৃহায়ন ও সামাজিক সেবা : গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় এবং স্থানীয় সরকারের বিভাগের ব্যয় এ খাতে ধরা হয় । ২০১০-১১ সালের বাজেটে এ খাতে ১৮,০০০ কোটি টাকা ব্যয় বরাদ্দ করা হয়েছে ।

৭. সামাজিক ও নিরাপত্তা কল্যাণ : সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় , মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় , খাদ্য মন্ত্রণালয় এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের ব্যয় এ খাতে ধরা হয় । ২০১০-১১ সালে বাজেটে এ খাতে মোট ৯,৯০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে ।

৮. কৃষি , মৎস্য ও পশু পালন : কৃষি মন্ত্রণালয় , মৎস্য ও পশু সম্পদ মন্ত্রণালয় , পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয় , ভূমি মন্ত্রণালয় এবং পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের নির্বাহী ব্যয় এ খাতে ধরা হয় । ২০১০-১১ সালের বাজেটে এ খাতে ১,১৫০ কোটি টাকা ব্যয় বরাদ্দ করা হয়েছে ।

৯. বিনোদন , সংস্কৃতি ও ধর্ম : তথ্য মন্ত্রণালয় , সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের ব্যয় এ খাতে ধরা হয়েছে । ২০১০-১১ সালের বাজেটে এ খাতে ১,৫৫০ কোটি টাকা ব্যয় বরাদ্দ করা হয়েছে ।

১০. জ্বালানি ও শক্তি : জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ এবং বিদ্যুৎ বিভাগের ব্যয় এ খাতে ধরা হয় । ২০১০-১১ সালের বাজেটে এ খাতে ৬,১০০ কোটি টাকা ব্যয় বরাদ্দ করা হয়েছে ।

১১. অন্যান্য অর্থনৈতিক সার্ভিস : বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এবং শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের নির্বাহী ব্যয় এ খাতে ধরা হয় ।

১২. খনি , উৎপাদন ও নির্মাণ : এ খাতে শিল্প মন্ত্রণালয় , পাট মন্ত্রণালয় এবং বস্ত্র মন্ত্রণালয়ের নির্বাহী ব্যয় ধরা হয় ।

১৩. সুদ : সরকারের গৃহীত ঋণের উপর প্রদেয় সুদ বাবদ ব্যয় এ খাতে ধরা হয়েছে । ২০১০-১১ সালের বাজেটে অভ্যন্তরীণ সুদ এবং বৈদেশিক ঋণের উপর প্রদেয় মোট ১৪,৭০৯ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে । এ ব্যয় সরকারের মোট রাজস্ব ব্যয়ের প্রায় ১১ % ।

১৪. পরিবহন ও যোগাযোগ : এ খাতে রয়েছে সড়ক ও রেলপথ বিভাগ , নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয় , বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় এবং ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের নির্বাহী ব্যয় । ২০১০-১১ সালের বাজেটে এ খাতে ৮,৯০০ কোটি টাকা ব্যয় বরাদ্দ করা হয়েছে ।

খ . উন্নয়ন ব্যয় : বাংলাদেশে সরকারের উন্নয়ন ব্যয়সমূহ উন্নয়ন বাজেটে অন্তর্ভুক্ত করা হয় । উন্নয়ন বাজেটের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত থাকে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি । ২০১১-১২ সালের বাজেটে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির জন্য ৪৬০০ কোটি টাকা ব্যয় বরাদ্দ করা হয়েছে ।

উপসংহার : উপরে বাংলাদেশ সরকারের ব্যয়ের বিভিন্ন খাত বর্ণনা করা হলো । সরকারি খাতে রাজস্ব ব্যয় অধিক হওয়ার কারণে রাজস্ব উদ্বৃত্ত পর্যাপ্ত পাওয়া যায় না । ২০১১-১২ সালের বাজেটে যে রাজস্ব উদ্বৃত্ত পাওয়া যাবে বলে আশা করা হচ্ছে তা উন্নয়ন বাজেটের ১৭ % অর্থায়ন করতে সক্ষম হবে । ফলে সরকারকে বৈদেশিক সাহায্য ও ঋণের মুখাপেক্ষী হতে হবে । এমতাবস্থায় সরকারের রাজস্ব আয় বাড়ানো যেমন প্রয়োজন তেমনি সরকারের রাজস্ব ব্যয় কমানোও প্রয়োজন ।

[ad_2]

পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন:01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!