[ad_1]

প্রশ্নঃ অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য সম্পদ আহরণে বাংলাদেশ সরকারের বাজেটের ভূমিকা উল্লেখ কর ।

উত্তর ৷ ভূমিকা : ২০০৯-১০ অর্থবছরের জাতীয় সঞ্চয় ছিল জিডিপি – এর ৩০.০২ % এবং মোট বিনিয়োগ ছিল ২৪.৪১ % । অতএব বাংলাদেশে ব্যাপক সম্পদ ঘাটতি বিরাজ করছে । এ কারণে বাংলাদেশ বৈদেশিক সাহায্য ও ঋণের উপর নির্ভর করতে বাধ্য হচ্ছে । কিন্তু সম্প্রতি বৈদেশিক সাহায্য ও ঋণের প্রবাহ হ্রাস পাচ্ছে এবং শর্ত কঠোরতর হচ্ছে । অতএব বৈদেশিক সাহায্যের পরিবর্তে অভ্যন্তরীণ সম্পদ আহরণ বাড়ানো অতি প্রয়োজনীয় হয়ে পড়েছে । অধিকন্তু উল্লেখ্য যে , বাংলাদেশের অর্থনীতিকে দারিদ্র্যের দুষ্টচক্র থেকে নিষ্কৃতি দেয়ার জন্য বর্তমান বিনিয়োগের হার যথেষ্ট নয় ।

অতএব অভ্যন্তরীণ সম্পদ বাড়ানো একান্ত আবশ্যক । দেশের অভ্যন্তরীণ সম্পদ আহৃত হয় বেসরকারি খাতে এবং সরকারি খাতে । বেসরকারি খাতে সম্পদ সংগ্রহ বলতে পরিবারসমূহের সঞ্চয় এবং কর্পোরেশনগুলোর অবণ্টিত মুনাফা বুঝায় । পক্ষান্তরে , সরকারি খাতে সম্পদ সংগ্রহ বলতে সরকারের রাজস্ব বাজেটের উদ্বৃত্ত বুঝায় । অতএব বাংলাদেশে অভ্যন্তরীণ সম্পদ আহরণে সরকারের বাজেট নিম্নরূপে ভূমিকা পালন করছে এবং আরো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে ।

ক . বেসরকারি খাতে সম্পদ আহরণে বাজেটের ভূমিকা : বেসরকারি খাতে সম্পদ আহরণে সরকার পরোক্ষ ভূমিকা পালন করতে পারে । বর্তমানে সরকার বিনিয়োগকৃত আয়কে কর অব্যাহতি দিচ্ছে । ফলে পরিবারসমূহ এবং কর্পোরেশনগুলো বিনিয়োগে উৎসাহিত হচ্ছে । ভবিষ্যতে সরকার বিনিয়োগকে কর অব্যাহতি দিয়ে এবং ভোগকে করারোপ করে বেসরকারি খাতে সঞ্চয় বাড়াতে পারে ।

খ . সরকারি খাতে সম্পদ আহরণে বাজেটের ভূমিকা : সরকারি খাতে বাজেটে সরাসরি সম্পদ আহরণে সরকার ভূমিকা রাখতে পারে । বাজেটে রাজস্ব ব্যয়ের তুলনায় রাজস্ব আয় বেশি হলে যে রাজস্ব উদ্বৃত্ত সৃষ্টি হয় তাই সরকারি খাতের সঞ্চয় । ২০১০-২০১১ সালের বাজেটে এই রাজস্ব উদ্বৃত্ত ২২,৪২৬ কোটি টাকা হবে বলে প্রাক্কলন করা হয়েছে । যদি তা বাস্তবায়িত হয় তবে সরকারের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির মোট ব্যয়ের প্রায় ৬৬ % সরকারের নিজস্ব তহবিল দ্বারা অর্থায়ন সম্ভব হবে । অতএব সরকারের রাজস্ব উদ্বৃত্ত বৃদ্ধির জন্য সরকার নিম্নোক্ত পন্থা অবলম্বন করতে পারে ।

১. রাজস্ব আয় বৃদ্ধি : সরকারি খাতে সম্পদ আহরণ বৃদ্ধির প্রধান উপায় হচ্ছে সরকারের রাজস্ব প্রাপ্তি বৃদ্ধি করা । বাংলাদেশ সরকারের রাজস্ব আয় বৃদ্ধি করার অনেক অবকাশ আছে ।

২. রাজস্ব ব্যয় হ্রাস : সরকারের রাজস্ব আয় বৃদ্ধির চেষ্টা করা যেমন প্রয়োজন তেমনই সরকারের রাজস্ব ব্যয় হ্রাস করার চেষ্টা করাও আবশ্যক । সরকার বলিষ্ঠ পদক্ষেপ গ্রহণের মাধ্যমে উল্লেখযোগ্য পরিমাণে ব্যয় হ্রাস করতে পারে ।

উপসংহার : উপরে বর্ণিত পদক্ষেপগুলো গ্রহণ করলে দেশের অভ্যন্তরীণ সম্পদ আহরণে সরকার আরো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারবে ।

[ad_2]

admin

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!