অথবা, ইউনিয়ন পরিষদের প্রকৃতি লিখ।
অথবা, ইউনিয়ন পরিষদের বৈশিষ্ট্যগুলো কী কী?
অথবা, ইউনিয়ন পরিষদের বৈশিষ্ট্যগুলো উল্লেখ কর।
অথবা, ইউনিয়ন পরিষদের নিয়ামকগুলো লিখ।
অথবা, ইউনিয়ন পরিষদের বৈশিষ্ট্যগুলোর বর্ণনা দাও।
অথবা, ইউনিয়ন পরিষদের প্রকৃতি উল্লেখ কর।
উত্তর৷ ভূমিকা :
বাংলাদেশের পল্লি অঞ্চলে কয়েকটি গ্রামের সমন্বয়ে এক একটি ইউনিয়ন পরিষদ গঠিত হয়।
গ্রামীণ সমস্যা সমাধানের মাধ্যমে পল্লির শ্রীবৃদ্ধি, গণচেতনা ও দায়িত্বশীল নেতৃত্ব বিকাশের লক্ষ্যে ইউনিয়ন পরিষদ
অনবদ্য ভূমিকার অধিকারী।
ইউনিয়ন পরিষদের বৈশিষ্ট্য : ইউনিয়ন পরিষদ অনেক কারণে বৈশিষ্ট্যপূর্ণ। এগুলো নিম্নে উল্লেখ করা হলো :
১. ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে জনগণের সাথে সরকারের প্রত্যক্ষ যোগাযোগ প্রতিষ্ঠিত হয়।
২. স্থানীয় সংস্থাগুলো গণতান্ত্রিক সংস্থারূপে গড়ে উঠার সুযোগ পায়। অতীতে মৌলিক গণতন্ত্রের সংস্থাগুলোতে সরকারি কর্মকর্তাদের গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব ছিল। কিন্তু ইউনিয়ন পরিষদ ব্যবস্থায় শুধুমাত্র জন প্রতিনিধিদের নির্বাচনের ব্যবস্থা করা হয়।
৩. এই ব্যবস্থা জনগণের স্থানীয় পর্যায়ে অংশগ্রহণের নিশ্চয়তা দান করে এবং শাসন ক্ষমতা উপভোগ করার ব্যবস্থা করে জনগণের মধ্যে দায়িত্বশীল নেতৃত্ব বিকাশের পথ সুগম করেছে। শাসনকার্যে প্রত্যক্ষভাবে অংশগ্রহণ করে তারা অধিকতর দায়িত্বশীল হয়ে উঠতে পারে।
৪. স্থানীয় উন্নয়ন কর্মসূচি স্থানীয় জননেতাদের নেতৃত্বে আরো প্রাণবন্ত হয়ে উঠবে এবং জাতীয় উন্নয়ন অধিকতর ত্বরান্বিত হবে।
উপসংহার : পরিশেষে বলা যায় যে, ইউনিয়ন পরিষদের মতো স্থানীয় স্বায়ত্তশাসন ব্যবস্থার দায়িত্বশীলতার উন্মেষ ঘটে। এতদিন পর্যন্ত স্থানীয় ও স্বায়ত্তশাসন পর্যায়ে সরকারি কর্মকর্তাদের আধিপত্য বজায় ছিল ঔপনিবেশিক শাসনব্যবস্থার জের হিসেবে। এ ব্যবস্থায় তার অবসান হয়।

admin

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!