ডিগ্রী ৩য় বর্ষ ২০২২ সকল বিষয়ের রকেট স্পেশাল সাজেশন ফাইনাল সাজেশন প্রস্তুত রয়েছে মূল্য মাত্র ২৫০টাকা প্রতি বিষয় এবং ৭ বিষয়ের নিলে ১৫০০টাকা। সাজেশন পেতে দ্রুত যোগাযোগ ০১৯৭৯৭৮৬০৭৯
ডিগ্রী তৃতীয় বর্ষ এবং অনার্স প্রথম বর্ষ এর রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে যোগাযোগ করুন সাজেশন মূল্য প্রতি বিষয় ২৫০টাকা। Whatsapp +8801979786079

‘আত্মবিলাপ’ কবিতায় কবি আশার ছলনে ভুলে কী উপলব্ধি করেছেন

প্রশ্না: ‘ আত্মবিলাপ ’ কবিতায় কবি আশার ছলনে ভুলে কী উপলব্ধি করেছেন ?

উত্তর : মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্ত ব্যক্তিগত জীবনে উচ্চাশার বশবর্তী হয়ে নিজ দেশ , ধর্ম , সংস্কৃতি ও ভাষা পরিত্যাগ করে ভিন্ন ধর্ম , সংস্কৃতি ও ভাষাকে বরণ করেছিলেন । কিন্তু অচিরেই তাঁর ভুল ভেঙে যায় । তিনি মর্মে মর্মে বুঝতে পারেন যে তাঁর এ উচ্চাশা পোষণ অনুচিত ছিল । আশার পিছনে কালক্ষেপণ করে কবি যে করুণ জীবন – অভিজ্ঞতা অর্জন করেছিলেন ‘ আত্মবিলাপ ‘ কবিতায় তারই প্রকাশ ঘটেছে । আশার ছলনায় ভুলে কবি জীবনের অমূল্য সময় ব্যয় করেছেন । যখন তিনি জীবনের এ ফাঁকিটুকু বুঝতে পেরেছেন তখনই প্রশ্ন তুলেছেন

“ আশার ছলনে ভুলি , কী ফল লভিনু , হায় ,

তাই ভাবি মনে ?

জীবন – প্রবাহ বহি কালসিন্ধু পানে ধায়

ফিরাব কেমনে ?

দিন দিন আয়ুহীন হীন বল দিন দিন ,

তবু এ আশার নেশা ছুটিল না , একী দায় ! ”

এ প্রশ্নের সাথে সাথে তিনি উপলব্ধি করেছেন যে , জীবনের প্রধান উপকরণ যে যৌবন তাওতো ফুরিয়ে যাচ্ছে । নিজের প্রমত্ত মনকে ধিক্কার দিয়ে তিনি পুনরায় প্রশ্ন করেছেন ……

রে প্রমত্ত মন মম ! কবে পোহাইবে রাতি ?

জাগিবি রে কবে ?

“ জীবন – উদ্যানে তোর যৌবন – কুসুম ভাতি

কতদিন রবে ? ”

দুর্বাদলের নীরবিন্দুর মতো ক্ষণস্থায়ী জীবন যে কোন সময় শেষ হয়ে যাবে । আশা মানুষকে স্বপ্ন দেখায় । কিন্তু সে স্বপ্ন দেখে কেবল কাঁদতেই হয় । বিদ্যুৎ যেমন পথিককে ক্ষণিকের জন্য আলোকিত করে ধাঁধায় ফেলে ; মরীচিকা কেবল পথিককে যেমন জলের আশায় বিচলিত করে তেমনি আশারূপী মরীচিকা মানুষের জীবনকে ভুলিয়ে ভালিয়ে দিকভ্রান্ত করে রাখে ।



পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!