ডিগ্রী ৩য় বর্ষ ২০২২ সকল বিষয়ের রকেট স্পেশাল সাজেশন ফাইনাল সাজেশন প্রস্তুত রয়েছে মূল্য মাত্র ২৫০টাকা প্রতি বিষয় এবং ৭ বিষয়ের নিলে ১৫০০টাকা। সাজেশন পেতে দ্রুত যোগাযোগ ০১৯৭৯৭৮৬০৭৯
ডিগ্রী তৃতীয় বর্ষ এবং অনার্স প্রথম বর্ষ এর রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে যোগাযোগ করুন সাজেশন মূল্য প্রতি বিষয় ২৫০টাকা। Whatsapp +8801979786079

‘ আত্মবিলাপ ’ কবিতায় কবির জীবনবোধের কী পরিচয় পাওয়া যায়

উত্তর : মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্ত ব্যক্তিগত জীবনে উচ্চাশার বশবর্তী হয়ে নিজ দেশ , ধর্ম , সংস্কৃতি ও ভাষা পরিত্যাগ করে ভিন্ন ধর্ম , সংস্কৃতি ও ভাষাকে বরণ করেছিলেন । কিন্তু অচিরেই তাঁর ভুল ভেঙে যায় । তিনি মর্মে মর্মে বুঝতে পারেন যে তাঁর এ উচ্চাশা পোষণ অনুচিত ছিল । আশাকে অবলম্বন করেই মানুষ বেঁচে থাকে । হতাশাগ্রস্ত মানুষের জীবনে কোন আনন্দ বা কর্ম প্রেরণা থাকে না । আশা জ্বলন্ত প্রেরণাশক্তি হয়ে কর্মের পথে মানুষকে ধাবিত করে । আশার পশ্চাতে ছুটে ছুটে কর্মোদ্যমী মানুষ অর্জন করতে চায় জীবনের সাফল্য । কিন্তু আশা যখন মরীচিকার মতো লুপ্ত হয়ে যায় তখন জীবনে নেমে আসে গভীর দুঃখবোধ । ‘ আত্মবিলাপ ’ কবিতায় আশাহত কবির জীবনবোধের বাস্তব প্রতিচ্ছবি ফুটে উঠেছে । মধুসূদন সারাটা জীবন আশার পিছনে ছুটে ছুটে হয়রান হয়েছেন । চলার পথের ব্যর্থতায় নিমজ্জিত কবি মন তখন প্রশ্ন তুলেছেন

“ আশার ছলনে ভুলি কী ফল লভিনু হায় ,

তাই ভাবি মনে ?

জীবন – প্রবাহ বহি কাল – সিন্ধু পানে ধায় ,

ফিরাব কেমনে ? ”

কবির এ জিজ্ঞাসার ভিতর দিয়েই তাঁর জীবন বোধের পরিচয় বিধৃত । জীবনের ব্যর্থতার গ্লানি তাকে প্রতিনিয়ত রক্তাক্ত করে চলেছে ।



পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!