অথবা, আত্মা সম্পর্কে শঙ্করের মত সংক্ষেপে আলোচনা কর।
অথবা, শঙ্করের মতে আত্মা কী?
অথবা, আত্মা সম্পর্কে শঙ্করের অভিমত কী?
অথবা, আত্মা সম্পর্কে শঙ্কর কী বলেন?
উত্তর৷ ভূমিকা :
মহর্ষি বাদরায়ন (আনু. ৫০০ খ্রি. পূ.) প্রণীত বেদান্তসূত্রে (৫৫৫টি সূত্র) ব্রহ্মতত্ত্ব প্রতিপাদিত হয়েছে বলে একে ব্রহ্মসূত্র বলে। আবার জীবের স্বরূপ বর্ণিত হওয়ায় একে শারীরিকসূত্রও বলা হয়। ব্রহ্মসূত্রের সাতটি ভাষ্যের (শঙ্করের শঙ্কভাষ্য, রামানুজের শ্রীভাষ্য, বল্লভের অনুভাষ্য, মাধ্বের পূর্ণপ্রজ্ঞাভাষ্য, নিম্বার্কের বেদান্ত পারিজাতসৌরভ, ভাস্করের ব্রহ্মসূত্রভাষ্য এবং বলদেবের গোবিন্দভাষ্য) মধ্যে শঙ্করের শঙ্করভাষ্য এবং রামানুজের শ্রীভাষ্য অন্যতম। শঙ্করাচার্য ও রামানুজ উভয়ে বাদরায়নকে অনুসরণ করে অদ্বৈতবাদ প্রচার করলেও শঙ্কারাচার্যের অদ্বৈতবাদ কেবলাদ্বৈতবাদ এবং রামানুজের অদ্বৈতবাদ বিশিষ্টাদ্বৈতবাদ নামে পরিচিত। শঙ্করাচার্য ও রামানুজ উভয়েই আত্মা, বন্ধন ও মোক্ষ সম্পর্কে তাদের দার্শনিক মতবাদ ব্যক্ত করেছেন।
শঙ্করের মতে আত্ম : নিম্নে আত্মা সম্পর্কে শঙ্করের মতো আলোচনা করা হলো :
১. আত্মা ও ব্রহ্ম এক এবং অভিন্ন : শঙ্করের মতে, আত্মা ও ব্রহ্ম এক এবং অভিন্ন। উপনিষদেও বার বার বলা হয়েছে যে, জীব ও ব্রহ্ম এক। শঙ্কর কেবলাদ্বৈতবাদী। তিনি কোন প্রকার ভেদে বিশ্বাস করেন না। শঙ্করের মতে, জীব ও ব্রহ্মের ভেদ, জ্ঞেয় ও জ্ঞাতার ভেদ প্রভৃতি সকল প্রকার ভেদই মায়া, কল্পিত ও মিথ্যা।
২. আত্মাই সৎ বস্তু, দেহ সৎ বস্তু নয় : শঙ্কর বলেছেন, আপাতদৃষ্টিতে মনে হয় মানুষ দেহ ও আত্মার সমষ্টি। কিন্তু আসলে তা নয়। মানুষের দেহ অন্যান্য জড় বস্তুর ন্যায় মিথ্যা অবভাস মাত্র। কেবল আত্মাই সৎ বস্তু, দেহ সৎ বস্তু নয়। এ আত্মাই ব্রহ্ম।
৩. জীব ও ব্রহ্ম এক ও অভিন্ন : মানুষ অজ্ঞানতাবশত জীব ও ব্রহ্মের মধ্যে যেমন ভেদ কল্পনা করে। তেমনি জগৎ ও ব্রাহ্মের মধ্যে ভেদ কল্পনা করে এবং ভেদ কল্পনা করে বলেছেন ব্রাহ্মে নানাবিধ গুণ আরোপ করে। কিন্তু এ ভেদাত্মক গুণগুলো বাস্তবিক নয়। তারা মায়িক ও প্রতিভাসিক। সুতরাং জীব ও ব্রহ্ম ভিন্ন প্রতীয়মান হলেও বস্তুত তারা এক ও অভিন্ন। অর্থাৎ জীব ব্রহ্ম ছাড়া অপর কিছুই নয়।
৪. অজ্ঞানতাবশত দেহ ও আত্মায় একাত্মতা বোধই আত্মার বন্ধন : আত্মার বন্ধন হলো দেহের সাথে আত্মার একাত্মতাবোধ। আত্মা স্বরূপত নিত্য, শুদ্ধ, বুদ্ধ ও মুক্ত। কিন্তু অবিদ্যা বা অজ্ঞানতাবশত আত্মা নিজেকে দেহের সাথে অভিন্ন মনে করে এবং নিজেকে বার্তা, জ্ঞাতা ও ভোক্তা মনে করে। ফলে দেহের জন্ম, মৃত্যু, সুখদুঃখ, শোক প্রভৃতিকে নিজের বলে মনে হয়। এটাই আত্মার বন্ধাবস্থা। আত্মার স্বরূপ সম্পর্কে জ্ঞানের এ অভাবই তার বন্ধাবস্থার কারণ।
উপসংহার : পরিশেষে বলা যায় যে, বেদান্ত দর্শনে রামানুজ ও শঙ্কর উভয়েরই মতবাদ সমান গ্রহণযোগ্যতা লাভ করেছেন। কিন্তু বিষয়ে তাদের মতে পার্থক্য থাকলেও তাদের গতি ও লক্ষ্য এক। তাই বেদান্ত দর্শনে উভয়কেই প্রয়োজন রয়েছে ।

https://topsuggestionbd.com/%e0%a6%8f%e0%a6%95%e0%a6%be%e0%a6%a6%e0%a6%b6-%e0%a6%85%e0%a6%a7%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a6%be%e0%a6%af%e0%a6%bc-%e0%a6%ac%e0%a7%87%e0%a6%a6%e0%a6%be%e0%a6%a8%e0%a7%8d%e0%a6%a4/
admin

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!