ডিগ্রি প্রথম এবং অনার্স দ্বিতীয় বর্ষ ২০২৩ এর সকল বিষয়ের রকেট স্পেশাল ফাইনাল সাজেশন প্রস্তুত রয়েছে মূল্য মাত্র ২৫০টাকা প্রতি বিষয় এবং ৭ বিষয়ের নিলে ১৫০০টাকা। সাজেশন পেতে দ্রুত যোগাযোগ ০১৯৭৯৭৮৬০৭৯

 ডিগ্রী সকল বই

বাংলার সুফি সাহিত্য সম্পর্কে যা জান লিখ।

অথবা, বাংলাদেশের সুফি সাহিত্য সম্পর্কে লেখ।
অথবা, সুফি সাহিত্য সম্পর্কে লেখ।
অথবা, বাংলার সুফি সাহিত্যের পরিচয় দাও।
অথবা, বাংলার সুফি সাহিত্য সংক্ষেপে আলোচনা কর।
উত্তরা।৷ ভূমিকা :
বাংলা আধ্যাত্মিক সাধনার চারণ ভূমি। সেই প্রাচীন কাল থেকেই বাঙালির মননে আধ্যাত্মিক চেতনার যে স্ফূরণ ঘটতে শুরু করে তাই কালক্রমে এদেশের ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিতে এক উল্লেখযোগ্য স্থান দখল করে নেয়। মধ্যযুগের বাঙালি চিন্তা মনন ও জীবনাদর্শে বিকশিত তেমনি একটি মরমি আদর্শ হচ্ছে সুফিবাদ। ইসলামের অভ্যন্তরীণ বা বাতেনি দিককে কেন্দ্র করে বিকশিত আধ্যাত্মিক সুফিবাদী ধারা বাঙালির জীবন, মনন ও জীবনাদর্শে বিকশিত তেমনি একটি মরমি আদর্শ হচ্ছে সুফিবাদ। ইসলামের অভ্যন্তরীণ বা বাতেনি দিককে কেন্দ্র করে বিকশিত আধ্যাত্মিক সুফিবাদী ধারা বাঙালির জীবন, মনন, সংস্কৃতি ও সাহিত্যে বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ ছাপ ফেলতে সক্ষম হয়।
বাংলার সুফি সাহিত্য : একথা ধ্রুব সত্য যে, যে কোন সমাজ বা দেশে বিকশিত কোন মতাদর্শ গভীর প্রভাব বিস্তার করে থাকে। কেননা, আমরা জানি প্রচলিত সমাজের জীবনাদর্শই সাহিত্যের মূল উপজীব্য। মধ্যযুগের বাঙালি জীবনাচারে বিকশিত ও প্রভূত প্রভাব বিস্তারকারী ইসলামি আদর্শভিত্তিক সুফিবাদী ধারার ক্ষেত্রেও ব্যতিক্রম ঘটেনি। তেরো শতকে বাংলায় মুসলিম শাসনের সূত্রপাত হলে শাসকদের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ সাহায্য ও সহযোগিতায় সুফিবাদী ধারাটি পূর্ণাঙ্গতা লাভ করে সর্বান্তকরণে। বাংলার সংস্কৃতি ও সাহিত্যে সুফিবাদ একটি উল্লেখযোগ্য স্থান দখল করে নেয় স্বগৌরবে। এ সময়ে বাঙালি মুসলমানদের তত্ত্ব সাহিত্যকে মোটামুটি তিনভাগে বিভক্ত ও বিশ্লেষণ করা হয়ে থাকে। যথা : ধর্ম সাহিত্য, সুফি সাহিত্য ও সওয়াল সাহিত্য। ইসলাম ধর্মকে কেন্দ্র করে বিকশিত বাংলা সাহিত্যের এ তিনটি ধারাই স্বকীয় বৈশিষ্ট্যকে ধারণ করতে সক্ষম হয়েছে। ধর্ম সাহিত্যে বিবৃত হয়েছে সাধারণ ধর্মীয় রীতিনীতি, আচার অনুষ্ঠান ও ধর্মীয় প্রত্যয়সমূহের বিস্তৃতি ব্যাখ্যা। আর সওয়াল জওয়াব বা প্রশ্ন ও উত্তরের আকারে রচিত সওয়াল সাহিত্যে অনুসন্ধান করা হয়েছে সৃষ্টি, স্রষ্টা, ইহকাল, পরকাল, পাপ-পুণ্য, ন্যায়-অন্যায়, জীবন, সমাজ, শাস্ত্র, নীতি, আচার আচরণ প্রভৃতি বিচিত্র ধরনের দার্শনিক বিষয়। অন্যদিকে, সুফি সাহিত্যে আলোচিত হয়েছে যোগ চর্চা নির্ভর আধ্যাত্ম সাধনার কথা। এতে সন্ধান করা
হয়েছে জীবনের শ্রেয় ও জগতের পরমসত্তার। অর্থাৎ সুফি সাধকের জীবনের পরম লক্ষ্য ও আরাধ্য সর্বশক্তিমান পরমসত্তা আল্লাহর অনুসন্ধান ও তাঁর সান্নিধ্য লাভের উপায় বা সাধন পদ্ধতি তথা সুফি পথ পরিক্রমই বর্ণিত হয়েছে সুফি সাহিত্যে। সুফির জীবনাচার, পরম ও চরম লক্ষ্যে তাঁর পথচলা এবং সে চলার পথে অনুসৃত তত্ত্বের তাত্ত্বিক আলোচনাই সুফি সাহিত্যের মূল উপজীব্য। তবে এসব সাহিত্যে অধিবিদ্যক বা আধ্যাত্মিক বিষয়ের পাশাপাশি স্থান পেয়েছে সামাজিক, নৈতিক ও দৈনন্দিন জীবনের নানা সমস্যা। কেননা, সুফিবাদ সন্ন্যাসব্রতে বিশ্বাস করে না বরং সমাজ ও সংসার জীবনে থেকেই সুফিরা পরমসত্তার অনুসন্ধান করে। আর তাঁদের এ অনুসন্ধান পরিচালিত হয় জ্ঞান ভক্তি কাম ও প্রেম মার্গে। যাহোক, বাংলার সুফি সাহিত্যিকদের মধ্যে যোল শতকের শেখ ফয়জুল্লাহ, হাজী মুহম্মদ, সৈয়দ সুলতান, সতেরো শতকের শেখ চান্দ এবং আঠারো শতকের আলীরজা ছিলেন আধ্যাত্ম দর্শনে সুপণ্ডিত। ফয়জুল্লাহর গোরক্ষ বিজয়, সৈয়দ সুলতানের জ্ঞান প্রদীপ ও জ্ঞান চৌতিষা, হাজী মুহম্মদের সুরুতনামা, শেখ চান্দের হরগৌরী সম্বাদ ও তালিব নামা এবং আলীরজার আগম ও জ্ঞান সাগর ছিল মধ্যযুগের সুফি সাহিত্যের মূল্যবান রচনার অন্তর্গত। এছাড়া সৈয়দ মর্তুজার যোগ কলন্দর, মীর মুহম্মদ সুফির নূরনামা, আবদুল হাকিমের চারি মোকামভেদ ও সিহাবুদ্দিন পীর নামা, বালক ফকিরের জ্ঞান চৌতিশা, শেখ নেয়াজের যোগী কলন্দর, মোহসেন আলীর মোকাম মঞ্জিল কথা, শেখ মনসুরের সিনামা, শেখ জাহিদের আদ্য পরিচয়, শেখ জেবুর আগম, রমজান আলির আদ্যব্যক্ত, রহিমুল্লার তনতেলায়ত, মকুল রচিত শাহ জালাল মধুবালা ও সিহাজুল্লাহর যুগী কাচ বাংলার সুফি সাহিত্যের মূল্যবান সম্পদ হিসেবে গণ্য। শুধু তাই নয় হায়াৎ মামুদ, লালনশাহ, পাঞ্জশাহ প্রমুখের সুফি কবিতাও সাহিত্যের অন্তর্গত। বাংলায় রচিত এসব তত্ত্ব সাহিত্যে বাংলার সুফিবাদের অনুশীলন তত্ত্ব ও দর্শনের এক চিত্তাকর্ষক বর্ণনা ও ভাষ্য উপস্থাপিত হয়েছে। এ সাহিত্যসমূহই বাংলার সুফি জ্ঞানের আকর গ্রন্থ হিসেবে গণ্য।
উপসংহার : অতএব দেখা যাচ্ছে সুফিবাদ বাংলার সাহিত্য ধারায় তাৎপর্যপূর্ণ প্রভাব রাখতে সক্ষম হয়েছে। যার ফলশ্রুতি বাঙালির ইসলামি সাহিত্য ধারা লাভ করেছে পরিপূর্ণতা।



পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!