ডিগ্রী ৩য় বর্ষ ২০২২ ইংরেজি রকেট স্পেশাল সাজেশন ফাইনাল সাজেশন প্রস্তুত রয়েছে মূল্য মাত্র ২৫০টাকা সাজেশন পেতে দ্রুত যোগাযোগ ০১৯৭৯৭৮৬০৭৯
ডিগ্রী তৃতীয় বর্ষ এবং অনার্স প্রথম বর্ষ এর রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে যোগাযোগ করুন সাজেশন মূল্য প্রতি বিষয় ২৫০টাকা। Whatsapp +8801979786079
Earn bitcoinGet 100$ bitcoin

প্রশ্ন॥১॥ অধ্যয়নের বিষয় হিসেবে স্থানীয় সরকারের গুরুত্ব লিখ।

অথবা, অধ্যয়নের বিষয় হিসেবে স্থানীয় সরকারের ভূমিকা আলোচনা কর।
অথবা, অধ্যয়নের বিষয় হিসেবে স্থানীয় সরকার কেন গুরুত্বপূর্ণ? সে সম্পর্কে বর্ণনা কর।
অথবা, রাষ্ট্রবিজ্ঞানে অধ্যয়নের বিষয় হিসেবে স্থানীয় সমকারের ভূমিকা আলােচনা কর।
অথবা, অধ্যয়নের বিষয় হিসেবে স্থানীয় সরকারের ভূমিকা বা কার্যাবলি আলােচনা কর।
অথবা, রাষ্ট্রবিজ্ঞান অধ্যয়নের বিষয় হিসেবে স্থানীয় সরকারের গুরুত্ব বর্ণনা কর।
অথবা, অধ্যয়নের বিষয় হিসেবে স্থানীয় সরকারের গুরুত্ব আলােচনা কর।
অথবা, অধ্যয়নের বিষয় হিসেবে স্থানীয় সরকারের ভূমিকা বর্ণনা কর।

ভূমিকা : স্থানীয় সরকার বিষয় অধ্যয়নের বিষয় হিসেবে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ । বর্তমান শাসনব্যবস্থায় স্থানীয় সরকার বিষয় একটি সুপ্রতিষ্ঠিত বিষয় হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করেছে। রাষ্ট্রে বসবাসরত মানুষের ক্ষমতা চর্চা, রাজনৈতিক অংশগ্রহণ, প্রশাসনিক অংশগ্রহণ, ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণ সরকারের সেবাসমূহ জনগণের দ্বারপ্রান্তে পৌছাতে
স্থানীয় সরকার আবশ্যক।

অধ্যয়নের বিষয় হিসেবে স্থানীয় সরকার : স্থানীয় সরকার সেই সরকার যে সরকার ক্ষুদ্র এলাকায় থাকে এবং কিছু অর্পিত ক্ষমতা প্রয়ােগ করে থাকে । নিম্নে অধ্যয়নের বিষয় হিসেবে স্থানীয় সরকারের গুরুত্ব বর্ণনা করা হলাে :
১. প্রশাসনিক সুবিধা : স্থানীয় সরকার অধ্যয়নের বিষয় হিসেবে কতকগুলাে মূলনীতি সম্পর্কে ব্যাপক ধারণা লাভ করা যায়। এসব মূলনীতি স্থানীয় সরকারের প্রশাসনিক কার্যাদি পরিচালনা করা ও কতকগুলাে জটিল ও কঠিন সমস্যা সমাধানের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ।
২. নাগরিক চেতনা : নাগরিক চেতনা স্থানীয় সরকার অধ্যয়নের গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। যুবসমাজের মধ্যে নাগরিক চেতনার বিকাশ ঘটে। যার ফলে দেশের উন্নয়ন ও অন্যান্য কর্মসূচিতে যথার্থভাবে অংশগ্রহণ করা এবং স্থানীয় পর্যায়ের সমস্যা চিহ্নিত ও সমাধান করা সম্ভব হয়।
৩. স্থানীয় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে সম্যক জ্ঞান : স্থানীয় সরকার বিষয় অধ্যয়নের ফলে সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীগণকে ভবিষ্যতে স্থানীয় রাজনীতি ও প্রশাসনে অংশগ্রহণের পথ উন্মুক্ত হয়। স্থানীয় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে সম্যক জ্ঞান ও ধারণা লাভ করে।
৪. স্থানীয় রাজনীতি ও প্রশাসনিক গবেষণা : স্থানীয় সরকার অধ্যয়নের বিষয় হিসেবে স্থানীয় রাজনীতি প্রকৃতি স্বরূপ বিশ্লেষণ করে এবং প্রশাসনিক সমস্যা সমাধান ও জনগণের দ্বারে প্রশাসনিক সেবা পৌছানাের জন্য গবেষণা করে। ফলে স্থানীয় পর্যায়ে সমস্যা চিহ্নিত ও ত্রুটিবিচ্যুতি নিরসনে পদ্ধতি ও কলা কৌশল উদ্ভাবন করা যায় ।
৫. নাগরিকদের রাজনৈতিক অংশগ্রহণ : স্থানীয় সরকার বিষয় অধ্যয়নের কারণে নাগরিকদের মধ্যে রাজনৈতিক চিন্তা চেতনা বৃদ্ধি পায়। যার ফলে রাজনীতিতে জন অংশগ্রহণ বৃদ্ধিতে সহায়ক হয়।
৬. স্থানীয় সরকার ও কেন্দ্রীয় সরকারের সাথে সমন্বয়সাধন : স্থানীয় সরকার অধ্যয়নের ফলে কেন্দ্রীয় সরকার ও স্থানীয় সরকারের মধ্যে সমন্বয়ের সৃষ্টি হয়। ফলে যে কোন দেশের প্রশাসনিক, রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, সামাজিক সমস্যা দ্রুত সমাধান করা যায়।
৭. গণতান্ত্রিক চর্চার বিকাশ : স্থানীয় সরকার অধ্যয়নে ফলে গণতান্ত্রিক চেতনার বিকাশ ঘটে। স্থানীয় জনগণ রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে অংশ গ্রহণের সুযােগ পায় যার ফলে তাদের মধ্যে গণতান্ত্রিক চেতনা ও মূল্যবােধের বিকাশ ঘটে যা উন্নত রাজনৈতিক সংস্কৃতি সৃষ্টিতে সহায়ক।
৮, ক্ষমতার চর্চা : স্থানীয় সরকার অধ্যয়নে নাগরিকগণ ক্ষমতার চর্চা সম্পর্কে জ্ঞান লাভ করেন। স্থানীয় সরকার সংবিধান অনুযায়ী কিছু ক্ষমতা প্রাপ্ত হন। স্থানীয় পর্যায়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণসহ নানাবিধ অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, প্রশাসনিক ক্ষমতা লাভ করে। যা নাগরিকদের ক্ষমতা চর্চায় উৎসাহিত করে।
৯, উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ : স্থানীয় সরকার অধ্যয়নের ফলে স্থানীয় জনগণ উন্নয়ন মূলক কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করতে পারে। স্থানীয় সরকার জাতীয় সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে জনগণকে উৎসাহিত করে থাকে।
১০. মিতব্যয়িতা : স্থানীয় সরকার অধ্যয়নের অন্যতম দিক হলাে সময়, অর্থ, শ্রমের দিক থেকে স্থানীয় সরকার অধিকতর মিতব্যয়িতার মাধ্যমে সমস্যা সমাধান করতে পারে।
১১. সার্বিক দক্ষতা বৃদ্ধি : স্থানীয় জনগণ দ্বারা স্থানীয় সরকার গঠিত হয় বলে জনগণের নিকট জনপ্রতিনিধিগণকে অধিকতর তৎপর ও সচেতন থাকতে হয়। যার ফলশ্রুতিতে সার্বিক দক্ষতা বৃদ্ধি পায়।
১২. জনগণের অসন্তোষ দূরীকরণ : স্থানীয় সরকার অধ্যয়নের মাধ্যমে উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড সম্পর্কে সুষ্ঠু ধারণা লাভ করা যায়। যার জনগণের অসন্তোষ দূরীকরণ সহজ হয়।
১৩. জাতীয় পরিকল্পনা বাস্তবায়ন : স্থানীয় সরকার অধ্যয়নে জাতীয় সরকারের পরিকল্পনা গ্রহণ ও বাস্তবায়ন সম্পর্কে জ্ঞানলাভ করা যায়। স্থানীয় জনগণের চাহিদা সম্পর্কে জানা যায়।
উপসংহার : পরিশেষে বলা যায় যে, স্থানীয় সরকার অধ্যয়ন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। স্থানীয় পর্যায়ের জনগণের অংশগ্রহণ, জনগণের দ্বারা স্থানীয় সমস্যা সমাধান করা, উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বৃদ্ধি করা, সর্বোপরি সুশাসন নিশ্চিত করণের বিষয় হিসেবে স্থানীয় সরকার অধ্যয়ন একান্ত অপরিহার্য।

পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন:01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!