অথবা, লিঙ্গ ও উন্নয়ন পদ্ধতির বৈশিষ্ট্য আলোচনা কর।
অথবা, জেন্ডার ও উন্নয়ন এর বৈশিষ্ট্য উল্লেখ কর।
অথবা, জেন্ডার ও উন্নয়ন পদ্ধতির বৈশিষ্ট্য বর্ণনা কর।
অথবা, জেন্ডার ও উন্নয়ন এর বৈশিষ্ট্যগুলো কী কী?
উত্তর৷ ভূমিকা :
জেন্ডার এবং উন্নয়ন হচ্ছে একমাত্র নারী উন্নয়ন নীতিমালা, যা নারীর জীবনের সকল দিককে ধারণ করে। জেন্ডার ও উন্নয়ন নীতিমালা নারীর তিন ধরনের ভূমিকাকেই (পুনরুৎপাদন, উৎপাদনমূলক এবং সামাজিক ব্যবস্থাপনা ও রাজনৈতিক) স্বীকৃতি দেয় এবং এদের মধ্যে ভারসাম্য বজায় রাখতে তৎপর হয়।
জেন্ডার ও উন্নয়নের বৈশিষ্ট্য : নিম্নে জেন্ডার ও উন্নয়নের বৈশিষ্ট্যগুলো দেয়া হলো : নিছক নারী উন্নয়ন নয়, নারী-পুরুষের সম্পর্ক উন্নয়নে মনোযোগ কেন্দ্রীভূত করে। পুরুষের সাথে সমতার ভিত্তিতে নারীকে উন্নয়নে সম্পৃক্ত করে। নারীকে সমস্যা নয়, সমাধানের কারণ হিসেবে দেখে। সমস্যার উপসর্গ বা লক্ষ্য নয়, কারণগুলোকে চিহ্নিত করে।
নারী-পুরুষের মধ্যে বিদ্যমান অসমতা বৈষম্যমূলক সম্পর্ক পুনর্বিন্যাসের দাবি জানায় ।
নারীর অধঃস্তন অবস্থাকে বৈষম্যমূলক সামাজিক প্রক্রিয়ার ফলস্বরূপ দেখে ।
নারীর অধস্তনতার ভিত্তিস্বরূপ বিরাজমান পিতৃতান্ত্রিক সমাজকাঠামোকে চ্যালেঞ্জ করে তার অবসান চায় ।
নারী-পুরুষের মধ্যে প্রচলিত কাজের বরাদ্দ, দায়-দায়িত্ব অর্থাৎ সমাজ কর্তৃক আরোপিত জেন্ডারভিত্তিক শ্রমবিভাজনের বিলুপ্তি দাবি করে।
পরিবার ও পরিবারের বাইরে নারীর সকল পারিশ্রমিকবিহীন কাজ ও অবদানের মূল্য ও স্বীকৃতি প্রদান করে।
নারী উন্নয়ন ও জেন্ডার সমতা অর্জনের লক্ষ্যে সহায়ক সকল ধরনের অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টির লক্ষ্যে রাষ্ট্রীয়মহস্তক্ষেপ বৃদ্ধির প্রয়োজনীয়তার প্রতি জোর দেয়।
উপসংহার : পরিশেষে বলা যায় যে, জেন্ডার ও উন্নয়ন নীতিমালা নারীর জীবনের সকল দিককে ধারণ করে। এ নীতিমালা বাস্তবায়িত হলে নারীর প্রতি সামাজিক নেতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তে নতুন ধরনের দৃষ্টিভঙ্গি নির্মিত হবে। সত্যিকার অর্থে নারী উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে।

https://topsuggestionbd.com/%e0%a6%9a%e0%a6%a4%e0%a7%81%e0%a6%b0%e0%a7%8d%e0%a6%a5-%e0%a6%85%e0%a6%a7%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a6%be%e0%a6%af%e0%a6%bc-%e0%a6%a8%e0%a6%be%e0%a6%b0%e0%a7%80-%e0%a6%93-%e0%a6%89%e0%a6%a8%e0%a7%8d/
admin

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!