অথবা, আল-ফারাবির দশম বুদ্ধি সম্পর্কিত মতবাদ লিখ ।
অথবা, আল-ফারাবি দশম বুদ্ধি সম্পর্কে কি বলেছেন?
অথবা, আল-ফারাবির দশম বুদ্ধি সংক্ষেপে ব্যাখ্যা কর।
অথবা, আল-ফারাবির দশম বুদ্ধি সম্পর্কে যা জান সংক্ষেপে লেখ।
উত্তর৷ ভূমিকা :
মুসলিম দর্শনের চিন্তাধারার বিবর্তনের ক্ষেত্রে যে সম্প্রদায় অবর্ণনীয় অবদান রেখেছে তার নাম ফালাসিফা সম্প্রদায় বা দার্শনিক সম্প্রদায়। এ দার্শনিক চিন্তাধারার শুরু হয়েছিল মূলত আরবীয় দার্শনিক আল-কিন্দি থেকে এবং তার পর যারা মুসলিম দার্শনিক হিসেবে বিশেষভাবে সমৃদ্ধি অর্জন করেছিলেন তাদের মধ্যে সর্বশ্রেষ্ঠ হলেন আবু নসর আল-ফারাবি (২৫৮ হি./৮৭০ খ্রি. ৩৩৯হি./৯৫০খ্রি.)। তিনি দর্শনের বিভিন্ন শাখায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন। তাঁর একটি গুরুত্বপূর্ণ মতবাদ হলো দশম বুদ্ধি সম্পর্কিত মতবাদ।
দশম বুদ্ধি সম্পর্কিত মতবাদ (Ten Intelligence Theory) : আল-ফারাবির দশম বুদ্ধি সম্পর্কিত মতবাদ ইসলামি দর্শনে একটি গুরুত্বপূর্ণ স্থান অধিকার করে আছে। এটি পদার্থবিদ্যা (Physics) ও জ্যোতির্বিদ্যার
(Astronomy) মূলভিত্তি। এটি দু’টি জগৎ তথা স্বর্গ (Heaven) ও মর্ত্যের (Earth) ব্যাখ্যা এবং গতি (Motion) ও পরিবর্তন (Change) বিষয়ক ঘটনার ব্যাখ্যা প্রদান করে।
জ্যোতির্বিদ্যার সাহায্যে দশম বুদ্ধি মতবাদের ব্যাখ্যা : বুদ্ধির সংখ্যা হলো দশটি। এ বুদ্ধি গঠিত হয় আদি বুদ্ধি এবং গ্রহ (Planets) ও গোলক (Spheres) নয়টি বুদ্ধির সমন্বয়ে। আল-ফারাবি গ্রিক জ্যোতির্বিদদের বিশেষ করে টলেমির মতবাদকে গ্রহণ করেন। টলেমির মতে, বিশ্বজগৎ নয়টি বৃত্তাবদ্ধ গোলকের দ্বারা গঠিত, যার সবগুলোই পৃথিবীর চারদিকে ঘুরে। বুদ্ধি ও আত্মা হলো এ গতির চালক। প্রত্যেক Spheres (গোলক) এর নিজস্ব বুদ্ধি ও আত্মা রয়েছে। ফারাবির
মতে, দশম বুদ্ধি সত্তা হলো Agent intelligence, যা ভূমণ্ডল বা পার্থিব জগতের সব ঘটনার নিয়ন্ত্রণ করে। আর আত্মা
হচ্ছে গোলকের নিকটবর্তী বা অব্যবহৃত চালক, যা তার শক্তি বুদ্ধি থেকে অর্জন করে থাকে। আত্মা গোলকের প্রতি এক ধরনের আধ্যাত্মিক আকর্ষণের দ্বারা কার্যকরী হয়ে থাকে। আল-ফারাবি বলেন, প্রত্যেক গোলক এক আধ্যাত্মিক আকর্ষণের কারণে গতিশীল হয়। এ আকাঙ্ক্ষা বা আকর্ষণ নিম্নতর গোলক থেকে উচ্চতর গোলক এ পৌছানোর আকাঙ্ক্ষা। পদার্থবিদ্যার সাহায্যে দশম বুদ্ধি সম্পর্কিত মতবাদের ব্যাখ্যা : আল-ফারাবি মনে করেন, জ্যোতির্বিদ্যা এবং পদার্থবিদ্যা ঘনিষ্ঠভাবে সম্পর্কযুক্ত। দশম বুদ্ধি থেকে মৌল জড় প্রবাহিত হয়ে থাকে, যা চারটি উপাদান এর মূল এবং একই বুদ্ধি থেকে বিভিন্ন আকারে প্রবাহিত হয়ে থাকে, যা দেহ উৎপন্নের জন্য জড়ের সাথে একত্রিত হয়। তিনি বলেন, পার্থিব জগৎ হচ্ছে বিভিন্ন ধরনের আকারের ক্রম বা Series, যা বস্তু (Matter) এর সাথে যুক্ত বা বিযুক্ত হয়। তাঁর মতে,
আকার ও জড়ের একত্রীকরণের ফল হলো উৎপাদন এবং পৃথকীকরণের ফল হলো ধ্বংস। তিনি মনে করেন, আবশ্যিক
পরিবর্তনের জন্য সূর্যের গতি উষ্ণতা ও শীতলতা উৎপন্ন করে। অন্য সব পৃথক পৃথক বুদ্ধি পার্থিব জগতের জন্য উপযুক্ত গতি উৎপন্ন করে। এভাবে পদার্থবিদ্যা (Physics) বিশ্বতত্ত্বের (Cosmology) সাথে মিশে বা একীভূত হয়ে যায় এবং পার্থিব জগৎ ঐশি বা স্বর্গীয় জগতের অধীনস্থ হয়।
উপসংহার : পরিশেষে বলা যায়, বিভিন্ন দার্শনিকদের প্রভাব থাকা সত্ত্বেও সামগ্রিকভাবে এটি ফারাবিয়ান তত্ত্ব। তিনি দর্শনের সাথে ধর্মের সঙ্গতি বিধানকালে যৌক্তিক ব্যাখ্যার সাহায্যে যেসব মত উপস্থাপন করেছেন সেগুলো পরস্পর সম্পর্কযুক্ত। এজন্যই তাঁর পদার্থবিদ্যা বিশ্বতত্ত্বে মিশে যায় এবং পার্থিব জগৎ স্বর্গীয় জগতের অধীন হয়ে পড়ে। তিনি দশম বুদ্ধি সম্পর্কীয় মতবাদের মাধ্যমে এক ও বহুর এবং গতি ও পরিবর্তনের সমস্যার যে ব্যাখ্যা দেন তা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

https://topsuggestionbd.com/%e0%a6%a6%e0%a7%8d%e0%a6%ac%e0%a6%bf%e0%a6%a4%e0%a7%80%e0%a6%af%e0%a6%bc-%e0%a6%85%e0%a6%a7%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a6%be%e0%a6%af%e0%a6%bc-%e0%a6%86%e0%a6%b2-%e0%a6%ab%e0%a6%be%e0%a6%b0%e0%a6%be/
admin

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!