ডিগ্রী ৩য় বর্ষ ২০২২ সকল বিষয়ের রকেট স্পেশাল সাজেশন ফাইনাল সাজেশন প্রস্তুত রয়েছে মূল্য মাত্র ২৫০টাকা প্রতি বিষয় এবং ৭ বিষয়ের নিলে ১৫০০টাকা। সাজেশন পেতে দ্রুত যোগাযোগ ০১৯৭৯৭৮৬০৭৯
ডিগ্রী তৃতীয় বর্ষ এবং অনার্স প্রথম বর্ষ এর রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে যোগাযোগ করুন সাজেশন মূল্য প্রতি বিষয় ২৫০টাকা। Whatsapp +8801979786079

অর্থ বাজার ও পুঁজি বাজারের সংজ্ঞা দাও ।

[ad_1]

👉 অর্থ বাজার ও পুঁজি বাজারের সংজ্ঞা দাও । বাংলাদেশের অর্থ বাজার ও পুঁজি বাজারের মধ্যে পার্থক্য কী ?

উত্তর ভূমিকা : অর্থ বাঁজার ও পুঁজি বাজার শব্দ দুটি আধুনিক অর্থনীতিতে এক বিশেষ পরিচিত শব্দ । প্রত্যেক দেশের অর্থনীতি সেদেশের অর্থ বাজার পুঁজি বাজার দ্বারা প্রভাবিত হয় । উন্নত ও গতিশীল অর্থ বাজার ও পুঁজি বাজার দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে । উন্নয়নশীল দেশের অর্থনৈতিক ক্রিয়াকর্ম তথা অর্থনৈতিক উন্নয়ন দ্রুতগতি লাভ করতে না পারার অন্যতম কারণ হলো উন্নত অর্থ বাজার ও পুঁজি বাজারের অনুপস্থিতি ।

অর্থ বাজার এবং পুঁজি বাজারের সংজ্ঞা : অর্থ বাজার অর্থ বাজার বলতে এমন এক ধরনের বাজারকে বুঝায় , যেখানে ঋণযোগ্য তহবিল হিসেবে অর্থের লেনদেন হয় । এ বাজারের ঋণদাতা ও ঋণগ্রহীতাগণ ‘ পরস্পরের সাথে সম্পর্ক বজায় রেখে ঋণের কারবার করে থাকে । অর্থ বাজারের সংজ্ঞা দিতে গিয়ে জিওফ্রে ক্রাউথার বলেন , “ বিভিন্ন ফার্ম ও প্রতিষ্ঠান যে বিভিন্ন মানের প্রায় মুদ্রার লেনদেন করে তাদের সম্মিলিত রূপই হলো অর্থ বাজার । সময়ের ভিত্তিতে অর্থ বাজারকে স্বল্পমেয়াদি , মধ্যমেয়াদি ও দীর্ঘমেয়াদি এ তিন ভাগে ভাগ করা হয় । তবে প্রকৃত অর্থে যে বাজারে স্বল্পকালের জন্য ঋণের লেনদেন হয় সে বাজারকে অর্থ বাজার বলা হয় । সকল প্রকারের বাণিজ্যিক ব্যাংক , বীমা কোম্পানি , স্টক এক্সচেঞ্জ , বাট্টা কারবারি ইত্যাদি সকল প্রতিষ্ঠান অর্থ বাজারের সম্ভাব্য ট্রেজারি বিল , প্রমিসরি নোট , হুন্ডি বা বিল অব এক্সচেঞ্জ প্রভৃতি ঋণপত্র হিসেবে অর্থ বাজারে ব্যবহৃত হয়ে থাকে ।

পুঁজি বাজার : পুঁজি বাজার হচ্ছে বস্তুত অর্থনীতি বাজারের একটি উপাদান । অর্থনীতিতে পুঁজি বাজার বলতে যেসব আর্থিক বা ঋণদানকারী প্রতিষ্ঠান দীর্ঘমেয়াদে ঋণ লেনদেন করে তাদের সমষ্টিকে বুঝায় । ভাওলি জি লাকেটের ভাষায় , ” The capital market.encompasses any transaction involving long term debt … দীর্ঘমেয়াদি উন্নয়ন কার্যক্রমে পুঁজি বাজার ঋণ সরবরাহ করে । প্রকৃতপক্ষে , পুঁজি বাজার হচ্ছে , সেসব প্রতিষ্ঠান ও ব্যবস্থাদির সমন্বয় যার মাধ্যমে মধ্যমেয়াদি তহবিল এবং দীর্ঘমেয়াদি তহবিল সংগৃহীত হয় এবং প্রয়োজন অনুযায়ী তা ব্যক্তি ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান ও সরকারকে যোগান দেয়া হয় । সুতরাং ঋণগ্রহীতা ও ঋণদাতার মধ্যে দীর্ঘমেয়াদের জন্য যে বাজারে ঋণের আদানপ্রদান হয় তাই হলো পুঁজি বাজার । পুঁজি বাজারে যেসব প্রতিষ্ঠান দীর্ঘমেয়াদি ঋণ যোগান দেয় সেগুলো হলো : অর্থ করপোরেশন ইস্যু হাউস , গৃহনির্মাণ ঋণদান সংস্থা , বীমা কোম্পানি , কৃষি ব্যাংক , শিল্প ব্যাংক , স্টক এক্সচেঞ্জ প্রভৃতি । শেয়ার এবং ডিবেঞ্চার পুঁজি বাজারে ঋণপত্র হিসেবে ব্যবহৃত হয় ।

অর্থ বাজার ও পুঁজি বাজারের পার্থক্য : অর্থ বাজার ও পুঁজি বাজারের মধ্যে নিম্নলিখিত পার্থক্য পরিলক্ষিত হয় :

১. অর্থ বাজারে সাধারণত স্বল্পমেয়াদি ঋণের কারবার করা হয় । এ বাজারে ঋণের মেয়াদকাল সাধারণত মাসের বেশি হয় না । পক্ষান্তরে , পুঁজি বাজারে দীর্ঘমেয়াদির জন্য ঋণের কারবার করা হয় । পুঁজি বাজারে ২০ থেকে ৩০ বছর মেয়াদকালের জন্য ঋণের আদানপ্রদান হয় ।

২. সাধারণত মানুষ ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সঞ্চিত অর্থই হলো অর্থ বাজারের মূলধনের প্রধান উৎস । পক্ষান্তরে , পুঁজি বাজারে তহবিল সংগৃহীত হয় সাধারণত এর সদস্যদের ইস্যুকৃত ঋণপত্রের মাধ্যমে ।

৩. অর্থ বাজারে হুন্ডি বা বিল অব এক্সচেঞ্জ ট্রেজারি বিল স্বল্পমেয়াদি আর্থিক সম্পত্তি , স্বল্পমেয়াদি সরকারি বন্ড প্রভৃতি স্বল্পমেয়াদি ঋণপত্রের লেনদেনের মাধ্যমে ঋণের চাহিদা ও যোগান মিটানোর ব্যবস্থা গৃহীত হয় । পক্ষান্তরে , পুঁজি বাজারের বেসরকারি , আধাসরকারি এবং সরকারি প্রতিষ্ঠানসমূহের শেয়ার , ডিবেঞ্চার প্রভৃতি দীর্ঘমেয়াদি ঋণপত্রের লেনদেন সম্পাদিত হয়ে থাকে ।

৪. পুঁজি বাজারে সুদের হারের চেয়ে অর্থ বাজারে সুদের হারের উঠানামা বেশি হয় । এর মূল কারণ হচ্ছে কোন অর্থনীতিতে যখন সুদের হারের সার্বিক কাঠামো উঠানামা হয় , তখন দীর্ঘমেয়াদি সুদের হারের তুলনায় স্বল্পমেয়াদি সুদের হারের উঠানামা বেশি এবং দ্রুত হয় ।

৫. অর্থ বাজারের সদস্য বাণিজ্যিক ব্যাংক , বীমা কোম্পানি , স্টক এক্সচেঞ্জ বিলের দালাল ইত্যাদি স্বল্পমেয়াদি তহবিল লেনদেন করে । অপরদিকে , শিল্প ব্যাংক , বিনিয়োগ ব্যাংক এবং শিল্প ঋণ সংস্থা যারা দীর্ঘকালীন ঋণ তহবিল নিয়ে কাজ করে তাদের সমন্বয়ে পুঁজি বাজার গঠিত ।

৬. শিল্পকারখানা স্থাপন , ভারী যন্ত্রপাতি ক্রয় ও স্থাপন উন্নয়ন প্রকল্পে অর্থায়নের জন্য পুঁজি বাজার ঋণ প্রদান করে থাকে । অন্যদিকে , প্রতিষ্ঠানের তারল্য বজায় রাখার জন্য কার্যকরী মূলধন সরবরাহের জন্য পুঁজি বাজার ঋণদান করে থাকে ।

৭. পুঁজি বাজার ঋণপত্রের বিনিয়োগকারীরা দু’ধরনের ঝুঁকির সম্মুখীন হয় । অর্থ ঝুঁকি এবং ঋণ ঝুঁকি । অর্থ বাজার বিনিয়োগকারীরা সাধারণত উত্তম ঋণপত্রের বিনিয়োগ করে বলে পুঁজি বাজারের তুলনায় এ বাজারের ঋণ ঝুঁকি অনেকটা কম ।

উপসংহার : উপর্যুক্ত ধারণার প্রেক্ষিতে বলা যায় , অর্থ বাজার এবং পুঁজি বাজার উভয়ই ঋণের লেনদেনের কারবার করে থাকে । এ উভয় বাজারকেই ঋণের কারবার করতে গিয়ে বিভিন্ন প্রকার ঋণদানকারী প্রতিষ্ঠানের সাথে সংশ্লিষ্ট হতে হয় ।

[ad_2]



পরবর্তী পরীক্ষার রকেট স্পেশাল সাজেশন পেতে হোয়াটস্যাপ করুন: 01979786079

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!